ফুফাতো ভাইয়ের ধর্ষণে কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা, ধর্ষক গ্রেপ্তার

ফুফাতো ভাইয়ের ধর্ষণে কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা, ধর্ষক গ্রেপ্তার

শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুরের নকলায় ফুফাতো ভাইয়ের ধর্ষণের শিকার এক কিশোরী (১৪) সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে গতকাল শনিবার (২২ জুন) নকলা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করলে পুলিশ অভিযুক্ত ধর্ষণ শাহিন মিয়াকে (২৮) গ্রেপ্তার করে।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার উরফা ইউনিয়নের শালখা গ্রামে। শাহিন স্থানীয় হাবিবুর রহমানের ছেলে।

এদিকে, আজ রোববার (২৩ জুন) তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।  

পারিবারিক ও লিখিত অভিযোগে জানা যায়, একই গ্রামের পাশাপাশি বাড়ি ও আত্মীয়তার সুবাদে ওই কিশোরীদের বাড়িতে শাহিনের অবাধ যাতায়াত ছিল। সেই সুযোগে শাহিন ওই কিশোরী অর্থাৎ, মামাতো বোনকে বেশ কয়েকবার জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এতে কিশোরী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

মামলার বাদী কিশোরীর পিতা জানান, হঠাৎ মেয়ের শারীরিক অবস্থার পরিবর্তন লক্ষ্য করি। জিজ্ঞাসাবাদে মেয়ে আমাদের কাছে সব ঘটনা  খুলে বলে। পরবর্তীতে আমি থানায় হাজির হয়ে ন্যায়বিচার চেয়ে ভাগ্নে শাহিনের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দাখিল করি।

এ ব্যাপারে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল কাদের মিয়া জানান, কিশোরীর পিতার লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে নকলা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করা হয়েছে। শাহিনকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন করা হয়েছে।

news24bd.tv/SHS

এই রকম আরও টপিক