মধ্যরাতের বজ্রাঘাতে পুড়ে মরল ৩ রাখাল, অক্ষত ১৫০ শূকর

মধ্যরাতের বজ্রাঘাতে পুড়ে মরল ৩ রাখাল, অক্ষত ১৫০ শূকর

অনলাইন ডেস্ক

নড়াইলের রামনগরচর এলাকায় বজ্রপাতে তিন রাখালের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন একজন। রোববার (৩০ জুন) মধ্যরাতে সদর উপজেলার রামনগরচর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা ঘটনাস্থলে শূকর চড়াচ্ছিলেন।

নিহতরা হলেন, যশোরের মনিরামপুর উপজেলার কাজীয়াড়া গ্রামের রতন মণ্ডল (৫৫), খুলনার নিজগ্রাম এলাকার মিল্টন মন্ডল ও সাতক্ষীরার তালা উপজেলার কাশিয়াডাঙ্গা গ্রামের নন্দ ঢালি (৫০)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ২৫ দিন আগে দেড়শ শূকর নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়েছিলেন তারা তিনজন। বিভিন্ন এলাকা ঘুরে তিন দিন আগে নড়াইল সদর উপজেলার রামনগরচর বিলে আসে ওই তিনজন। রোববার (৩০ জুন) বিলের মধ্যে পলিথিনের তাবু টানিয়ে তারা ঘুমিয়েছিলেন।

পাশেই সুতা দিয়ে তৈরি বেড়ার মধ্যে শূকরগুলো ছিল। রাত ২টার দিকে প্রচণ্ড বৃষ্টিপাতের সঙ্গে কয়েক দফা বজ্রপাত হয়। এতে তিনজনই পুড়ে মারা যান। অন্যজন গুরুতর আহত হয়ে ঘটনাস্থলেই পড়ে ছিলেন।

প্রায় দেড়শ শূকরের কোনো ক্ষতি হয়নি। ভোরে মাঠের মধ্যে আহত চিত্ত ঢালিকে দেখেন লোকজন। পরে তাকে নড়াইল সদর হাসপাতারে পাঠানো হয়। বাকিরা পুড়ে মরে ছিলেন। পরে পুলিশ এসে আলামত সংগ্রহ করে নিয়ে যায়।

যশোর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) উপ পরিদর্শক (এসআই) সঞ্জয় বলেন, ‘গভীর রাতে মাঠের মধ্যে তিনজনের মৃত্যুর ঘটনা তদন্ত করছি। কীভাবে বজ্রপাতে একসাথে তিনজন মারা গেল সে বিষয়ে অনুসন্ধান চলছে। ’

news24bd.tv/তৌহিদ

এই রকম আরও টপিক

পাঠকপ্রিয়