গাজা যুদ্ধের সমাপ্তি নিয়ে আলোচনা করতে প্রস্তুত হামাস

সংগৃহীত ছবি

গাজা যুদ্ধের সমাপ্তি নিয়ে আলোচনা করতে প্রস্তুত হামাস

অনলাইন ডেস্ক

ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস জিম্মি বিনিময় ও ‘সম্পূর্ণ ও স্থায়ী যুদ্ধবিরতি’ ছাড়াই গাজা যুদ্ধের সমাপ্তি নিয়ে আলোচনা করতে প্রস্তুত। হামাসের এক শীর্ষ কর্মকর্তা রোববার এএফপিকে এ তথ্য জানিয়েছে।

এএফপি জানায়, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কাতার ও মিশরের মধ্যস্থতা প্রচেষ্টায় হামাসের অবস্থানে শিথিলতা এসেছে। আটক জিম্মিদের মুক্তি ও ৯ মাস ব্যাপী যুদ্ধ থামাতে চুক্তিতে আসতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছে সংগঠনটি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এ কর্মকর্তা এএফপিকে বলেন, হামাস এর আগে ইসরাইলে একটি সম্পূর্ণ ও স্থায়ী যুদ্ধবিরতিতে রাজি ছিল। কিন্তু এটি হয়নি। কারণ মধ্যস্থতাকারীরা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, যতদিন বন্দি নিয়ে আলোচনা হবে না, ততদিন যুদ্ধবিরতি হবে না।

কর্মকর্তারা জানান, ইসরায়েল এর আগে হামাসের স্থায়ী যুদ্ধবিরতির দাবির তীব্র বিরোধিতা করেছে।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ৩১ মে একটি পরিকল্পনার কথা জানিয়ে বলেছিলেন, ইসরায়েল একটি স্থায়ী যুদ্ধবিরতি ও সমস্ত জিম্মিদের মুক্তির প্রস্তাব করেছে।

মধ্যস্থতাকারীদের সঙ্গে আলোচনার জন্য শুক্রবার দোহায় গিয়েছিলেন এক ইসরায়েলি আলোচক। ইসরায়েল বলেছে যে হামাসের পাল্টা প্রস্তাবে এখনো ঘাটতি রয়েছে। তবে আলোচক এই সপ্তাহে দোহা থেকে ফিরে আসবে।

তখন বিষয়টি পরিষ্কার হবে। মধ্যস্থতা সম্পর্কে জানা একজন কর্মকর্তা জানান, মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) পরিচালক উইলিয়াম বার্নসও এই সপ্তাহে কাতারে যাবেন।

হামাস কর্মকর্তা আরো বলেছেন, মিশর ও তুরস্কও চুক্তিতে পৌঁছানোর জন্য চেষ্টা চালাবে। যদি পূর্ণ আলোচনা হয়, তবে দুই থেকে তিন সপ্তাহ সময় লাগবে বলে আশা করছে হামাস। এছাড়া যদি যুদ্ধবিরতি শুরু হয় তবে তারা প্রতিদিন ৪০০ ট্রাকে করে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে প্রবেশ করবে।

news24bd.tv/DHL