মুখে দাঁড়ি, মাথায় টুপি; সেই আবেদ আলীই করতেন প্রশ্নফাঁস

মুখে দাঁড়ি, মাথায় টুপি; সেই আবেদ আলীই করতেন প্রশ্নফাঁস

অনলাইন ডেস্ক

মুখে দাঁড়ি, মাথায় টুপি। ধর্মভীরু মানুষ হিসেবেই পরিচিত ছিলেন পিএসসির চেয়ারম্যানের সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী জীবন। তবে এক ঝটকায় তার আসল পরিচয় চলে এলো সবার সামনে।  

গতকাল রোববার দেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে একটি অনুসন্ধান প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়ার পর জানা যায়, বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) পরীক্ষাসহ ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের সঙ্গে জড়িত তিনি।

 

সাধারণ একজন গাড়ি ড্রাইভার হলেও অভিযোগ উঠেছে কোটি কোটি টাকার সম্পতির মালিক এই আবেদ আলী। করতেন বিলাসবহুল জীবন-যাপন। এমনকি চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে না গেলে হতোই না তার।  

প্রশ্নফাঁসের মতো জঘন্য অপরাধ করে বিপুল পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছে আবেদ আলী।

সেই টাকায় তার ছেলেকে বিদেশে পড়াশোনা করিয়েছেন তিনি। এখন পর্যন্ত ঢাকার ভেতর তার দুটি বহুতল ভবনের খোঁজ মিলেছে। এছাড়া মাদারীপুরে আলিশান বাড়ি রয়েছে এমন তথ্যও সামনে এসেছে।

মাদারীপুরের ডাসার উপজেলার বাসিন্দা এই আবেদ আলী। সর্বশেষ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য প্রচারণা চালিয়েছিলেন তিনি।

এছাড়া আবেদ আলী সমাজের বিত্তবান ও প্রভাবশালীদের সঙ্গে নিয়মিত চলাফেরা করতেন। প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিদের সঙ্গেও উঠবস করতেন।

ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়ামও কম যান না। বাবার অবৈধ টাকায় ডাসার উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি জীবন মানুষকে সাহায্য করে সেই ভিডিও আবার জোরেশোরে প্রচার করতেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। চড়তেন দামি গাড়িতে।

এদিকে, এতসব অভিযোগ সামনে আসতেই গ্রেপ্তার করেছেন আবেদ আলী। আজ সোমবার (৮ জুলাই) সিআইডির সদর দপ্তর সূত্রে এতথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।  

জানা গেছে, বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের (বিসিএস) পরীক্ষাসহ ৩০টি নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে পিএসসির চেয়ারম্যানের সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলী জীবন, দুই উপ-পরিচালকসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।

news24bd.tv/SHS