বুদ্ধিমান লোকদের অসুখী হওয়ার কারণ

সংগৃহীত ছবি

বুদ্ধিমান লোকদের অসুখী হওয়ার কারণ

অনলাইন ডেস্ক

সুখ কোনও অবস্থা নয়, বরং এক মানবিক অনুভূতি। সুখ মনের এমন এক অবস্থা বা অনুভূতি যা ভালবাসা, তৃপ্তি, আনন্দ অথবা উচ্ছ্বাস দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। নানা ভাবে, নানা দিক থেকে সুখের সংজ্ঞা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে। জীবন আপনাকে যা দিয়েছে তাকে গ্রহণ করা এবং জীবন যে রকম তাকে সেভাবেই আত্তীকরণ করার যে সামর্থ্য তার মধ্যেই সুখের চাবিকাঠি লুকিয়ে আছে।

চলমান মানব জীবনের চড়াই-উতরাই পেরোতে বুদ্ধিমত্তা, কৌশল বেশ জরুরি। বুদ্ধিমত্তা আপনাকে আপনার জীবনের উন্নতির দিকে নিয়ে যাবে। তবে আপনি জানেন জানেন কি, বেশি বা অতিরিক্ত বুদ্ধিমত্তা অনেক সময় সমস্যার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে?

মনো বিশেষজ্ঞরা বলেন, অতিরিক্ত বুদ্ধিমান লোক অনেক সময় সুখী হতে পারে না। কারণ, তারা সবকিছু নিয়ে একটু বেশিই ভাবে, বিশ্লেষণ করে।

 প্রতিটি জিনিসই নিয়ে এই অতিরিক্ত বিশ্লেষণ তাদের হতাশ করে তোলে। এতে করে জীবনের একটা মুহূর্তে গিয়ে অসুখী হয়ে পড়ে তারা। যেখান থেকে তারা আর বের হয়ে আসতে পার না।

বেশি বুদ্ধিমান লোকদের সুখী না হওয়ার কিছু কারণের কথা জানিয়েছে ট্রুথ থিওরি ডটকম

১. বুদ্ধিমান লোকেরা সাধারণত অর্জন, সম্পর্ক কোনো কিছুতেই সন্তুষ্ট হতে পারে না। তাই সুখী হওয়া কঠিন হয়ে পড়ে তাদের।

২. বুদ্ধিমান লোকেরা নিজেদের প্রতি বেশ কঠোর থাকে। তারা অতীতে বারবার ফিরে যায়। তাদের ভুল, নেতিবাচক আবেগগুলো নিয়ে বেশি ভাবতে থাকে।

৩. বাস্তবতা তাদের জন্য যথেষ্ট নয়। বড় কিছু পেয়েও তারা সাধারণত ক্ষান্ত হয় না। ধরন, অর্থ, উদ্দেশ্য খুঁজতে থাকে বারবার।

৪. অধিকাংশ বুদ্ধিমান লোক একা হয়ে পড়ে। কারণ, তাদের মনে হয়, কেউ তাদের মানসিকতাকে বুঝতে পারছে না।

৫. বেশি বুদ্ধিমান লোকেরা বিভিন্ন মানসিক সমস্যায় ভোগে। গবেষণায় বলা হয়, তাদের ক্ষেত্রে সামাজিক উদ্বেগ, বাইপোলার মুড ডিজঅর্ডার ইত্যাদি সমস্যা হতে দেখা যায়।

এইসব কারণে অনেক সময় দেখা যায় বুদ্ধিমান মানুষের জীবন একা থেকে যায়। আর এর ফলেই অধিকাংশ বুদ্ধিমান মানুষই একটা সময়ের পর মানসিক রোগে ভুগতে থাকেন বলে অভিমত বিশেষজ্ঞদের।

news24bd.tv/FA

পাঠকপ্রিয়