১৭ জুন ,সোমবার, ২০১৯

শিরোনাম

> অফবিট

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

২৩ নভেম্বর ,বৃহস্পতিবার, ২০১৭ ১২:৫৩:৩৬

যে কারণে কুমারীত্ব বিক্রি করলেন মার্কিন মডেল


যে কারণে কুমারীত্ব বিক্রি করলেন মার্কিন মডেল

মার্কিন মডেল গিসেলে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে নেওয়া।


গত কয়েক বছর ধরে হঠাৎ করেই যেন বিশ্বজুড়ে 'কুমারীত্ব' বিক্রির হিড়িক পড়েছে। পশ্চিমা বিশ্বের অনেক মেয়েই গত কয়েকমাসে এমন ঘোষণা দিয়ে আলোচনায় এসেছেন। এবার সেই কাতারে নাম লেখালেন মার্কিন তরুণী গিসেলে। পড়াশুনার পাশাপাশি পার্ট টাইম মডেলিং করা গিসেলে সম্প্রতি দাবি করেছেন যে, আবুধাবির এক ব্যবসায়ীর কাছে ৩০ লাখ ডলারে নিজের কুমারীত্ব বিক্রি করেছেন তিনি। আর তিনি এটা করেছেন পড়াশুনার খরচের পাশাপাশি দেশ-বিদেশ ঘুরে বেড়ানোর অর্থ জোগাড় করতে।

অর্থের পরিমাণ শুনে অনেকে আকাশ থেকে পড়লেও বিশ্বে এমন ভুরি ভুরি ধনকুবের আছেন যারা কোন নারীর কুমারীত্ব কিনে নিতে নিলামে শত কোটি টাকা 'দর' হাকাতেও কার্পণ্য করেন না। আর ওই নারী যদি হয় কোন তারকা, অভিনেত্রী বা মডেল, তাহলে তো কথাই নেই; 'দাম' ওঠে তরতরিয়ে। বিষয়টাকে ওইসব ধনকুবেররা নিজেদের ক্ষমতা ও আত্মসম্মানের বিষয় হিসেবে মনে করেন।

পড়াশোনার খরচ চালাতেই কুমারীত্ব বিক্রি করছেন বলেও দাবি করেন এই মার্কিন তরুণী। জার্মানির একটি এসকর্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তিনি নিলামে তোলেন তার কুমারীত্ব। পরে আবুধাবির ওই ব্যবসায়ী সবচেয়ে বেশি দাম দিয়ে কিনে নেন। দ্বিতীয় সর্বাধিক মূল্য দিতে চেয়েছিলেন হলিউডের এক অভিনেতা। তার দাম ছিল ২৪ লাখ ডলার আর তৃতীয় সর্বাধিক দাম ১৮ লাখ ডলার দিতে চেয়েছিলেন এক রাশিয়ান রাজনীতিবিদ।

গিসেলে বলেন, ‘আমি ভাবিনি যে নিলামে এত দাম উঠবে। স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মত ঘটনা। যারা কুমারিত্ব বিক্রি করার বিরোধিতা করেন, তাদের ব্যবহারে আমি অবাক। আমি যদি ভালোবাসার মানুষ ছাড়া অন্য কারও সঙ্গে নিজেকে শেয়ার করতে চাই, সেটা আমার সিদ্ধান্ত। '

১৯ বছরের ওই মডেল নিজেই একটি ভিডিও আপলোড করেছেন। সেখানেই তিনি ব্যাখ্যা দিয়েছেন যে নিজের স্কুলের পড়াশোনা চালানোর জন্য ও ভবিষ্যতে বিভিন্ন জায়গায় ঘোরার জন্য ওই টাকা তুলেছেন। তিনি আরও বলেছেন, নিজের শরীর নিয়ে তিনি কী করবেন না করবেন সেটা সম্পূর্ণ তার ব্যাপার।

নারীর কুমারীত্ব নিলামে তোলা বা বিক্রি নিয়ে বিশ্বব্যাপী সমালোচনা থাকলেও এ রীতি দিন দিন সামনেই এগিয়ে যাচ্ছে। সমালোচকরা এটাকে নারীর অমর্যাদা হিসেবে মনে করলেও যারা এটা করছেন তারা নিজেদের কাজের পক্ষে শক্ত যুক্তি উপস্থাপন করছেন। তাদের মতে যখন কোন নারী বিপদে পড়ে, চিকিৎসা, শিক্ষা বা অন্ন-বস্ত্রের জন্য আর্থিক অনটনে থাকেন, তখন কেউ এগিয়ে আসে না। তাই এসব সমালোচনা গায়ে না মেখে নিজে ভালো থাকার জন্যই তারা এটা করছেন। তাদের যুক্তি, অনেক মেয়েই বিয়ের আগে নানাভাবে কুমারিত্ব হারাচ্ছেন। কেউ ধর্ষণের শিকার হচ্ছেন। কেউ মদের পার্টিতে গিয়ে কুমারীত্ব হারাচ্ছেন। আর এই কাজটার বিনিময়ে যদি মোটা অংকের অর্থ পাওয়া যায় তাহলে ক্ষকি কী?

এর আগে ইউলিয়া নামের ইউক্রেনের এক তরুণী নিজের কুমারীত্ব বিক্রির জন্য বিজ্ঞাপন দিয়েছিলেন। ১৮ বছরের ওই তরুণী বলেছিলেন, একটি ভালো কাজ করার জন্য তার ১ হাজার ৫০০ পাউন্ড (প্রায় ১ লাখ ৫৭ হাজার টাকা) প্রয়োজন। তা সহজে জোগাড় করতে না পারায় নিজের কুমারীত্ব বিক্রির ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

ইউলিয়া বলেন, ‘আজ হোক বা কাল, আমাকে কুমারীত্ব বিসর্জন দিতেই হবে। কোনো মদের উৎসবে কুমারীত্ব হারানোর চেয়ে একটি ভালো কাজের উদ্দেশ্যে তা বিক্রি করাই ভালো।’

এ পর্যন্ত যারা এই কাজ করেছেন তাদের কেউ ঋণ শোধ করতে, কেউ বাবা-মায়ের পৈত্রিক সম্পত্তি রক্ষা করতে, কেউ লেখাপড়ার খরচ জোগাতে নিজের কুমারীত্ব নিলামে তুলেছেন।

এর আগে ঘোষণা দিয়ে নিজের কুমারীত্ব বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন রোমানিয়ার ১৮ বছর বয়সী মডেল আলেজান্দ্রা খেফরেন। ঋণগ্রস্ত মা-বাবার বন্ধকি বাড়ি বাঁচাতে এবং বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার খরচ জোগাতে গত বছরের শেষের দিকে নিজের কুমারীত্ব বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। সিনড্রেলা এসকর্টের মাধ্যমে নিজের কুমারীত্ব নিলামে তুলেছিলেন তিনি। সেখানে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হংকংয়ের এক ব্যবসায়ী সর্বোচ্চ দর ২০ লাখ ডলার (প্রায় ১৬ কোটি ১২ লাখ টাকা) হেঁকে আলেজান্দ্রা খেফরেনের কুমারীত্ব কিনে নেন।

ইনডিপেনডেন্টের খবরে বলা হয়েছে, সিনড্রেলা এসকর্টস নামের জার্মানিভিত্তিক একটি ওয়েবসাইট এই বাণিজ্যের মধ্যস্থতা করে। ওয়েবসাইটটি গত বছর রোমানিয়ার ১৮ বছর বয়সী মডেল আলেকজেন্ড্রা কেফরেনের ‘কুমারীত্ব’ বিক্রির ঘটনার মধ্য দিয়ে আলোচনায় আসে। ওই মডেল হংকংয়ের এক ব্যবসায়ীর কাছে ‘কুমারীত্ব’ বিক্রি করেছিলেন।

ওয়েবসাইটটির মালিক জার্মানির ডর্টমুন্ডের ২৭ বছরের যুবক জ্যঁ জ্যাকবিলস্কি। ফোর্বসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এই বেচাকেনায় যে লাভ হয়, তার ২০ শতাংশ তাঁর প্রতিষ্ঠান পায়। একই সঙ্গে তিনি জানান, যে মেয়ে মানসিকভাবে যথেষ্ট পরিপূর্ণ নন, কিংবা মানসিকভাবে সুস্থ নন, তাঁকে এই সুযোগ দেন না।


রুবেল হত্যায় বাবা-ছেলের যাবজ্জীবন
হানিফ পরিবহনের বাসের চাপায় ছাত্র-শিক্ষক নিহত
ঘুমের ওষুধ খাইয়ে সন্তানকে হত্যা করল মা
প্রতিশোধ নিতে প্রেমিকের মুখে অ্যাসিড নিক্ষেপ
ঘুম থেকে তুলে সন্তানকে গলাকেটে হত্যা করল মা
শিশুর চিৎকারে ধরা ‘ধর্ষক’ যুবক
দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে যুবলীগ নেতাকে হত্যা
‘৭০-৭৫ করলে রোহিতকে ঠেকানো কঠিন’
ইয়াবা কারবারিতে জামাই-শ্বশুর গ্রেপ্তার
ওসি মোয়াজ্জেম এখন সোনাগাজী থানায়
হাজতির পায়ুপথে ইয়াবা!
রায়পুরে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২
বাংলাদেশ কী পেয়েছে, প্রশ্ন ফখরুলের
‘ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের ব্যাপারে সাবধান’
ঈদে বেড়াতে গিয়ে ৯ বছরের শিশু ধর্ষণ
নৌকার তলা ফেটে ডুবে নারীর মৃত্যু, নিখোঁজ ১
মাদারীপুরে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ, আহত ১৫
নির্বাচনী মাঠে ‘সশস্ত্র’ সর্বহারাদের আনাগোনা
‘পার্বত্যাঞ্চলে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলা হবে’
ভারতের জুটি ভাঙলেন ওয়াহাব
রুবেল হত্যায় বাবা-ছেলের যাবজ্জীবন
হানিফ পরিবহনের বাসের চাপায় ছাত্র-শিক্ষক নিহত
ঘুমের ওষুধ খাইয়ে সন্তানকে হত্যা করল মা
প্রতিশোধ নিতে প্রেমিকের মুখে অ্যাসিড নিক্ষেপ
ঘুম থেকে তুলে সন্তানকে গলাকেটে হত্যা করল মা
শিশুর চিৎকারে ধরা ‘ধর্ষক’ যুবক
দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে যুবলীগ নেতাকে হত্যা
‘৭০-৭৫ করলে রোহিতকে ঠেকানো কঠিন’
ইয়াবা কারবারিতে জামাই-শ্বশুর গ্রেপ্তার
ওসি মোয়াজ্জেম এখন সোনাগাজী থানায়
হাজতির পায়ুপথে ইয়াবা!
রায়পুরে গৃহবধূকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২
বাংলাদেশ কী পেয়েছে, প্রশ্ন ফখরুলের
‘ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের ব্যাপারে সাবধান’
ঈদে বেড়াতে গিয়ে ৯ বছরের শিশু ধর্ষণ
নৌকার তলা ফেটে ডুবে নারীর মৃত্যু, নিখোঁজ ১
মাদারীপুরে আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ, আহত ১৫
নির্বাচনী মাঠে ‘সশস্ত্র’ সর্বহারাদের আনাগোনা
‘পার্বত্যাঞ্চলে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলা হবে’
ভারতের জুটি ভাঙলেন ওয়াহাব
'বিশ্বকাপ থেকে বাদ পড়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ'
যেসব পণ্যের দাম বাড়বে-কমবে!
বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব নিশ্চিত করল বাংলাদেশ
আরো ২২ পণ্য নিষিদ্ধ
কুকুরের সঙ্গে মিলিত হতে চায় স্বামী, বিপাকে স্ত্রী!
'বড় জায়গায় হাত দিলে হাত পুড়ে যায়'
গায়ে হলুদ অনুষ্ঠানে কাঁদলেন নুসরাত
ধর্ষণে বাধা দেয়ায় প্রেমিকাকে হত্যার পর মরদেহ ধর্ষণ
বাজেটে কমবে স্বর্ণের দাম!
 ২০ লাখ টাকা অনুদান পেলেন দুই অভিনেতা
কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার খেলার সূচি
গ্রেপ্তার হলেন ওসি মোয়াজ্জেম
সাক্ষীকে হাত-পা কেটে হত্যা করল আসামি পক্ষ
বৃষ্টিতে পণ্ড হতে পারে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচে
যাত্রীকে পিষে মারা সেই বাসচালক গ্রেপ্তার
রিয়াদে ২৮ বাংলাদেশির মানবেতর জীবন-যাপন
সিগারেট ধরাতে দিয়াশলাই না দেওয়ায়...
‘ইসরাইল আমেরিকার বন্ধু নয়’
মামীকে হত্যার দায়ে ভাগ্নের মৃত্যুদণ্ড 
সাক্ষাৎ করুন নইলে ব্যবস্থা, জিনপিংকে ট্রাম্প

সব খবর