মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ৩১ মিনিট আগে

জজ পরিচয়ে বিয়ে করতে গিয়ে ধরা যুবক

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

জজ পরিচয়ে বিয়ে করতে গিয়ে ধরা যুবক

নিজেকে জজ পরিচয় দিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে স্থানীয়দের হাতে ধরা পড়লেন রাশেদুল ইসলাম সোহাগ (৩০) নামে এক যুবক। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার পাড়াগাঁও এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

রাশেদুল গাজীপুরের কাপাসিয়া উপজেলার বেরারচালা গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রাশেদুল তার বড় ভাই আসাদ ও ভাবিকে নিয়ে ঘটকের মাধ্যমে ভালুকা উপজেলার একটি গ্রামে বিয়ে করতে যান। রাশেদুল ইসলাম সোহাগ সেখানে নিজেকে সাতক্ষীরা জেলার সহকারী জজ পরিচয় দেন। এতে কনে পক্ষের লোকজনের সন্দেহ হলে একই নামের সাতক্ষীরা জেলার সহকারী জজ এর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে যোগযোগ করেন। এতে সোহাগ ভুয়া প্রমাণিত হয়। পরে স্থানীয় চেয়ারম্যান তোফায়েল আহম্মেদ বাচ্চু ভালুকা মডেল থানায় খবর দিলে পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ঘটনায় ভালুকা মডেল থানার এসআই জহুরুল হক বাদী হয়ে প্রতারণার অভিযোগে একটি মামলা করেন। শনিবার রাশেদুল ইসলাম সোহাগকে আদালতের পাঠানো হয়।

এর আগেও রাশেদুল ইসলাম সোহাগ জজ পরিচয়ের অভিযোগে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হন। এবং তার বিরুদ্ধে একটি মামালা হয়। 

সোহাগের বড় ভাই আসাদ জানান, তার ভাই সোহাগ উকালতি পাশ করার গজীপুর জজ কোর্টে উকিলের জুনিয়র হিসেবে কাজ করছেন। বিয়ের জন্য হাবিরবাড়িতে এসে ছিল।

এ ধরণের ঘটনায় এর আগেও গাজীপুরের কাপাসিয়া থানায় সোহাগের বিরুদ্ধে মামলা করা হয় নিশ্চিত করে ভালুকা মডেল থানার ওসি ফিরোজ তালুকদার জানান, উপজেলার পাড়াগাঁও গ্রামে ভুয়া জজ সেজে বিয়ে করতে এসে আটক হওয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য