শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ৩২ ঘন্টা ৫০ মিনিট আগে

এইচএসসি পরীক্ষায় ভুল প্রশ্নপত্র বিলি

সাতজনকে অব্যাহতি

দিনাজপুর প্রতিনিধি

এইচএসসি পরীক্ষায় ভুল প্রশ্নপত্র বিলি

চলমান এইচএসসি পরীক্ষায় জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রের নৈর্ব্যক্তিক (এমসিকিউ) প্রশ্নের বদলে দ্বিতীয় পত্রের প্রশ্ন পরীক্ষার্থীদের মাঝে 
বিলি করার ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট সরকারী কলেজ পরীক্ষাকেন্দ্রের এ ঘটনায় সাতজনকে প্রত্যাহার এবং তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ড।

ভুলবশত বিলি হওয়া জীববিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা ছিল আগামী ২ মে।

দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু বকর সিদ্দিক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, জীববিজ্ঞান দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা ২ মে হওয়ার কথা ছিল। তা পরিবর্তন করে দিনাজপুর বোর্ডের সকল কেন্দ্রে ১৩ মে তারিখ নির্ধারিত করা হয়েছে। তবে তদন্তের পর দায়িত্ব অবহেলাকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ১০টায় দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার পাকেরহাট সরকারী কলেজ পরীক্ষাকেন্দ্রে এইচএসসি পরীক্ষার জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রসহ আরও তিনটি বিষয়ে পরীক্ষা শুরু হয়। এ সময় জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রের নৈর্ব্যক্তিকের বদলে দ্বিতীয় পত্রের নৈর্ব্যক্তিকের প্রশ্নের খাম খুলে বিলি করা হয়। মুহূর্তের মধ্যে সেটি পরীক্ষার্থীদের নজরে এলে পুনরায় জীববিজ্ঞান প্রথম পত্রের প্রশ্ন দিয়ে পরীক্ষা শুরু করা হয়।

খানসামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহমেদ মাহবুব-উল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের নির্দেশে কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত
কর্মকর্তা উপাধাক্ষ্য উমাপদ অধিকারী ও উপজেলা প্রশাসনের দায়িতপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার শরিফুল ইসলাম, প্রভাষক রফিকুল ইসলাম এবং ভুল প্রশ্ন বিলি করা দুটি কক্ষের চারজন কক্ষ পরিদর্শকসহ সাতজনকে প্রত্যাহার করা হয়। 

পরে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা উমাপদ অধিকারীকে প্রত্যাহার করে ওই কলেজের রসায়নের প্রভাষক মহিউদ্দিনকে নতুন করে দায়িত্ব দেওয়া হয়। একই সঙ্গে পরীক্ষাকেন্দ্র্রের দায়িত্বে থাকা ট্যাগ কর্মকর্তা উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মো. শরিফুল ইসলামের জায়গায় উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মাসুদ রানাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/পলাশ/তৌহিদ)

মন্তব্য