কাজের মেয়েকে বিয়ে, স্ত্রীর বিষপানে আত্মহত্যা!
কাজের মেয়েকে বিয়ে, স্ত্রীর বিষপানে আত্মহত্যা!

আত্মহত্যা

কাজের মেয়েকে বিয়ে, স্ত্রীর বিষপানে আত্মহত্যা!

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

কাজের মেয়েকে বিয়ে করার খবর শুনে অভিমানে বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন স্ত্রী। আজ দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। ওই গৃহবধূর নাম সাবিকুন্নাহার রূপা (৩২)। তিনি মাগুরা বারের অ্যাডভোকেট এবং গোপালগঞ্জের টুঙ্গপাড়ার নবীর হোসেন মোল্লার মেয়ে।

সাবিকুন্নাহার রূপার ভাই বাবু মোল্লা জানান, মাগুরা শহরের পারনান্দুয়ালী এলাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী তমাল মাহমুদের সঙ্গে ১২ বছর আগে বিয়ে হয় রূপার। সম্প্রতি রূপার স্বামী তমাল গোপনে বাড়ির এক কাজের মেয়েকে বিয়ে করেছে বলে খবর পায় তাদের পরিবার। এ খবরের সত্যতা জেনে আজ ভোররাতে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন রূপা। পরে তাকে দ্রুত মাগুরা সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পরও অবস্থার অবনতি হয়। সেখান থেকে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর একটার দিকে রূপার মৃত্যু হয়।

তিনি আরো জানান, তার লাশ ফরিদপুর থেকে গোপালগঞ্জে বাবা বাড়িতে নেওয়া হয়েছে। তমাল মাহমুদও রূপার লাশের সঙ্গে গোপালগঞ্জে গেছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত সিদ্ধান্তের বিষয়ে পরে পারিবারিকভাবে সিদ্ধান্ত হবে বলে জানান বাবু মোল্লা।

সাবিকুন্নাহার রূপা মাগুরা বারের অ্যাডভোকেট শাখারুল ইসলাম শাকিলের জুনিয়র হিসেবে আইন পেশায় নিয়োজিত ছিলেন।    

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

সম্পর্কিত খবর