শুক্রবার, ৩ জুলাই, ২০২০ | আপডেট ৪২ মিনিট আগে

‘চাঁদা না পেয়ে’ ডিম ভাঙ্গায় ছয় পুলিশ প্রত্যাহার

নাটোর প্রতিনিধি

‘চাঁদা না পেয়ে’ ডিম ভাঙ্গায় ছয় পুলিশ প্রত্যাহার

ভাঙ্গা ডিমের ছবি তোলা হচ্ছে।

নাটোরের বড়াইগ্রামে ডিম ভাঙ্গার ঘটনা খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার সকালে এই কমিটি গঠন করা হয়।

এদিকে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ছয় পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করেছে হাইওয়ে পুলিশ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছে হাইওয়ে পুলিশ বগুড়া অঞ্চলের পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম।

বগুড়া হাইওয়ে রেঞ্জের পুলিশ সুপার জাহাঙ্গীর আলম জানান, বৃহস্পতিবার সকালে বড়াইগ্রামে ঘুষ না দেওয়ায় রশি কেটে পিকআপে থাকা প্রায় তিন লাখ টাকার ডিম রাস্তায় ফেলে নষ্ট করেছে বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশ। বিভিন্ন গণমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টির সত্যতা অনুসন্ধানের জন্য অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ শহীদকে প্রধান করে এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এদিকে, তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ শহীদ শুক্রবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এসময় তিনি ঘটনাস্থল থেকে গাড়ির কেটে দেওয়া রশিসহ বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেন। এছাড়া স্থানীয় প্রত্যেক্ষদর্শী, ভুক্তভোগী এবং এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলেন। পরে বনপাড়া হাইওয়ে থানায় যান তদন্ত কমিটির প্রধান। সেখানে হাইওয়ে থানা পরিদর্শন করেন তিনি।

এসময় তদন্ত কমিটির প্রধান মোহাম্মাদ শহীদ সাংবাদিকদের বলেন, তিনি বিভিন্ন গনমাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে এসেছেন। তদন্তে যারাই দোষী প্রমাণিত হবেন তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা দেওয়া হবে। তবে তদন্তের স্বার্থে ক্যামেরার সামনে কোনো কথা বলতে রাজি হননি তিনি।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকালে একটি পিকআপ (ঢাকা মেট্রে-ন ১৭-৩৭৮০) ৩৫ হাজার ১০০ ডিম নিয়ে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ থেকে যশোরে যাচ্ছিল। বড়াইগ্রামের আগ্রান সূতিরপাড় এলাকায় পিকআপটির চাকা পাংচার হয়ে গেলে সেটি পাশের ফিডার রোডে নেমে যায়। খবর পেয়ে বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে আসে। এ সময় পুলিশ সদস্যরা পিকআপ উদ্ধারের জন্য রেকার ভাড়াসহ ২০ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করে। চালক এতে রাজি না হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে পুলিশ সদস্যরা পিকআপে ডিমের খাঁচি বাঁধার রশি চাকু দিয়ে কেটে দেয়। এতে প্রায় তিন লাখ টাকা মূল্যের ডিম পুলিশ নষ্ট করে ফেলে বলে অভিযোগ করেন ডিম ব্যবসায়ী।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/নাসিম/তৌহিদ)

মন্তব্য