শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ২০ ঘন্টা ০৭ মিনিট আগে

সন্ত্রাসীর গুলিতে মিশিগানে বাংলাদেশি নিহত

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক 

সন্ত্রাসীর গুলিতে মিশিগানে বাংলাদেশি নিহত

মিশিগান অঙ্গরাজ্যের ডেট্রয়েট সিটিতে জয়নুল ইসলাম (৬০) নামে এক বাংলাদেশি ট্যাক্সি চালক সন্ত্রাসীর গুলিতে নিহত হয়েছেন।

শুক্রবার ২৪ মে রাতে তারাবির নামাজ শেষে ট্যাক্সি নিয়ে বের হবার পর রাত ২টার দিকে ডেট্রয়েট সিটির মিড টাউনে কলিংউডে এ নৃশংসতা চলে বলে পুলিশের উদ্ধৃতি দিয়ে মিশিগানের কমিউনিটি লিডার সৈয়দ শাহেদুল হক জানান। 

জয়নুলের ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের উদ্ধৃতি দিয়ে ডেট্রয়েটের পুলিশ জানায়, কলিংউডে ৬০০ ব্লকে একজন যাত্রী নামানোর পর সে ভাড়া না দিয়েই চলে যাচ্ছিল। এ সময় ক্ষুব্ধ জয়নুলের সাথে ঐ যাত্রীর কড়া বাক্য বিনিময়ের এক পর্যায়ে যাত্রীটি গুলি করে। গুলিবিদ্ধ জয়নুল কাল বিলম্ব না করে ট্যাক্সি চালিয়ে ঐ স্থান ত্যাগের চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তার আগেই তিনি ট্যাক্সির নিয়ন্ত্রণ হারান। ট্যাক্সিটি পথের পাশে একটি গাছের সাথে প্রচন্ড বেগে ধাক্কা খায় এবং সেখানেই প্রাণ হারান জয়নুল। 

নিহত জয়নুল ইসলাম ডেট্রয়েটের অধিবাসী এবং কাশ্মীর স্ট্রিটে স্ত্রী ও ৭ সন্তান নিয়ে বসবাস করতেন। তিনি রাতের শিফটে ট্যাক্সি চালাতেন। তার বাড়ি মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা থানার বর্ণি ইউনিয়নের কাজীবন্ধ গ্রামে। ঈদের পর দুই কন্যাকে বাংলাদেশে নিয়ে বিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি ছিল জয়নুলের। 

এদিকে, জয়নুলের হত্যায় জড়িত দুর্বৃত্তকে অবিলম্বে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবিতে শনিবার ডেট্রয়েট সিটি সংলগ্ন হ্যামট্রমিক এলাকায় প্রবাসীরা মানববন্ধন করেছেন। বাংলাদেশিসহ ট্যাক্সি চালকদের নিরাপত্তায় যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানানো হয় এ সময়। 

অপরদিকে, ডেট্রয়েটের পুলিশ সর্বসাধারণের সহযোগিতা চেয়েছে দুর্বৃত্তকে গ্রেপ্তারে। 

নিহত জয়নুল ইসলামের জানাজা ২৬ মে রোববার যোহর নামাজের পর মসজিদ উন নূর-এ অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবার ২৮ মে ডিয়াবর্ন মুসলিম গোরস্থানে তাকে দাফন করার কথা। 

উল্লেখ্য, জয়নুল ডিভি লটারিতে জয়ী হয়ে পরিবার নিয়ে ১৫ বছর আগে যুক্তরাষ্ট্রে এসেছিলেন। বড় মেয়ের বিয়ে দেয় উপলক্ষ্যে আগামী ২০ জুন তার পরিবারের বাংলাদেশে যাওয়ার কথা ছিল। 


(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)
 

মন্তব্য