মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০৫ ঘন্টা ৪৯ মিনিট আগে

নারী সাংবাদিককে ধর্ষণের অভিযোগ ট্রাম্পের অস্বীকার

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

নারী সাংবাদিককে ধর্ষণের অভিযোগ ট্রাম্পের অস্বীকার

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ১৯৯০ এর দশকে নিউইয়র্কের এক দোকানের ড্রেসিং রুমে একজন নারী সাংবাদিককে ধর্ষণ করেছিলেন বলে যে অভিযোগ উঠেছে, তা অস্বীকার করেছেন।

শনিবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের একটি বিবৃতির বরাত দিয়ে এই তথ্য জানায় বিবিসি বাংলা।

এলিজাবেথ জিন ক্যারোল নামের এই নারীর অভিযোগ, ১৯৯৫ সালের শেষদিকে বা ১৯৯৬ এর প্রথমদিকে বার্গডর্ফ গুডম্যান নামের অভিজাত পোশাকের দোকানটিতে তাকে ধর্ষণ করেন ট্রাম্প।

এই বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান, এটা সম্পূর্ণ ‘কাল্পনিক’কথা। অভিযোগ করা নারীকে তিনি কখনও দেখেননি। এই নারী তার নতুন বই বিক্রির জন্য অভিযোগটি করেছেন।

তিনি আরও বলেন, এটা কল্পকাহিনি হিসেবেই বিক্রি হওয়া উচিত। এই ঘটনার কোনো প্রমাণ নেই। দোকানটির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, যে এমন কোনও ঘটনার ভিডিও ফুটেজ নেই।

ক্যারোল বা নিউইয়র্ক ম্যাগাজিনের সঙ্গে ডেমোক্র্যাটিক পার্টি কাজ করছে- এরকম প্রমাণ যদি কারও হাতে থাকে, তবে হোয়াইট হাউসকে জানানোর আহ্বান জানান ট্রাম্প।

শুক্রবার নিউইয়র্ক ম্যাগাজিনে প্রকাশিত এক নিবন্ধে ক্যারোলকে ট্রাম্পের ধর্ষণ করা সম্পর্কিত তথ্য উল্লেখ করা হয়।

এতে ক্যারোল জানান, দোকানটিতে তাকে দেখে ট্রাম্প জানান তিনি একটি উপহার কিনতে এসেছেন। টিভি অনুষ্ঠানের সুবাদে তাকে চেনেন বলেও উল্লেখ করেন।

তিনি জানান, এরপর তারা কথাবার্তা বলেন এবং মেয়েদের অন্তর্বাস পরা নিয়ে ঠাট্টা-তামাশা করেন। তারা একটা ড্রেসিং রুমে যান এবং সেখানেই ট্রাম্প তাকে ধর্ষণ করেন।

তিনি আরও জানান, ঘটনাটি যখন ঘটে, তখন তিনি অভিযোগ করেননি। কারণ তার এক বন্ধু বলেন, বিষয়টা আদালতে নিয়ে গেলে তার মামলা জেতার কোনও সম্ভাবনা নেই।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে এর আগে ১২ জনেরও বেশি নারী যৌন অসদাচরণের অভিযোগ এনেছেন। তবে তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন।


(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)

মন্তব্য