মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০৬ ঘন্টা ৪৫ মিনিট আগে

রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব চাইল মালয়েশিয়া

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব চাইল মালয়েশিয়া

রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও মর্যাদাপূর্ণ প্রত্যাবাসন এবং সেই সঙ্গে তাদের পূর্ণ নাগরিকত্ব দিতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে মালয়েশিয়া।

এছাড়া রোহিঙ্গা গণহত্যায় নেতৃত্ব দেয়া ঘাতক মিয়ানমার সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের বিচারের আওতায় আনারও তাকিদ দিয়েছে দেশটি।

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে শনিবার শুরু হওয়া ৩৪তম আসিয়ান শীর্ষ সম্মেলনে উদ্বোধনী বক্তব্যে রোহিঙ্গা ইস্যুতে জোর দিয়ে এসব কথা বলেন মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইফুদ্দিন বিন আবদুল্লাহ। পরে এক টুইটার বার্তায় এ খবর প্রকাশ করে মালয়েশিয়া পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। খবর এএফপির।

কয়েক শতাব্দী ধরে বসবাস করে এলেও রোহিঙ্গাদের নাগরিক বলে স্বীকার করে না মিয়ানমার। ১৯৮২ সালে তাদের নাগরিকত্ব হরণ করে রাষ্ট্রহীন নাগরিকে পরিণত করে। এরপরই দেশ থেকে বিতাড়িত করতে ষড়যন্ত্র চালাতে থাকে।

সেই লক্ষ্যে প্রায়ই তাদের অভিযান চালায় দেশটির সেনাবাহিনী। অবশেষে ২০১৭ সালের আগস্টে পূর্বপরিকল্পিতভাবে রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর কাঠামোবদ্ধ অভিযান শুরু করে। কয়েক মাসব্যাপী ওই অভিযানের প্রথম এক মাসেই ১০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গাকে হত্যা করে।

ধর্ষণ ও গণহত্যার মুখে দেশ ছাড়তে বাধ্য হয় ৭ লক্ষাধিক মানুষ। সেই থেকে দেড় বছর ধরে প্রতিবেশী দেশ বাংলাদেশের কক্সবাজারে শরণার্থী শিবিরে মানবেতর জীবনযাপন করছে তারা। গণহত্যায় নেতৃত্ব দেয়ার অপরাধে সেনাবাহিনীর শীর্ষ কর্মকর্তাদের বিচারের সুপারিশ করেছে জাতিসংঘ।


(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)

মন্তব্য