বুধবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৪ ঘণ্টা ০৭ মিনিট আগে

বাগেরহাটের মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের পর হত্যার অভিযোগ

বাগেরহাট প্রতিনিধি 

বাগেরহাটের মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষনের পর হত্যার অভিযোগ

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার পল্লীতে বিবস্ত্র অবস্থায় হিরা আক্তার (১১) নামের ৬ষ্ঠ শ্রেনীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে মোরেলগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম বহরবুনিয়া গ্রামের গাউছ শেখের বাড়ি থেকে এই লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

নিহত হিরা আক্তার বহরবুনিয়া গ্রামের গাউছ শেখের মেয়ে এবং স্থানীয় ছাপড়াখালী গাজীরঘাট দাখিল মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। স্থানীয়দের অভিযোগ হিরা আক্তারকে দুর্বৃত্তরা ধর্ষণের পর হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রেখেছে।

নিহতের পিতা গাউছ শেখ জানান, দুপুরে মাদ্রাসা থেকে ফেরার পরে একসাথে খাবার খেয়ে বেলা ৩টার দিকে তিনি বাড়ির বাইরে যান। তার মা এ সময় ঘরে ছিল না। সন্ধ্যায় খবর পান ঘরে মেয়ে হিরা বিবস্ত্র অবস্থায় ঝুলে আছে।

স্থানীয় চৌকিদার মানিক ও এলাকাবাসি জানান, মেয়েটিকে বিবস্ত্র ও গলায় গামছা দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় পাওয়া গেছে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে কামড়সহ নানা নির্যাতনের চিহ্ন রয়েছে। 

ওই ছাত্রীর চাচা মো. খলিল শেখ জানান, ঘরে কেউ না থাকার সুযোগে উচ্চস্বরে সাউন্ডবক্স বাজিয়ে হিরা আক্তারকে যৌন নির্যাতন শেষে গলায় ফাঁস লাগিয়ে হত্যা করে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। 

তার পরনের কাপড় চোপড় ছেড়া অবস্থায় পাশের খাটের ওপর পাওয়া গেছে।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজিজুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ রাতে বিবস্ত্র ও গলায় গামছা দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় মাদ্রাসা ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে। 

তার শরীরের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। দুর্বৃত্তরা ধর্ষণের পর হত্যা করে ছাত্রীর লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)

মন্তব্য