বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ২৯ মিনিট আগে

অবশেষে সরানো হলো গুজব ছড়ানো সেই টিউবওয়েল

শেখ রুহুল আমিন, ঝিনাইদহ

অবশেষে সরানো হলো গুজব ছড়ানো সেই টিউবওয়েল

অবশেষে সরিয়ে ফেলা হয়েছে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের পূর্বপাড়া মাঠের মেহগনি বাগানের স্থাপন করা গুজব ছড়ানো সেই টিউবওয়েলটি। 

প্রতারণা ও গুজব রটিয়ে দেয়ার অভিযোগে ঝিনাইদহ জেলা প্রশাসকের নির্দেশে মঙ্গলবার রাতে টিউবওয়েলটি তুলে নেন সদর উপজেলার মধুহাটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন জুয়েল।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাজার গোপালপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই দেলোয়ার হোসেন, এএসআই আব্দুল মালেক উপস্থিত ছিলেন। বুধবার সকালে ওই স্থানে গিয়ে দেখা যায়, জায়গাটি এখন শুধুই মাঠ।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার নিজের রোগ মুক্তির কথা বলে ইউপি চেয়ারম্যান খাসি জবাই করে হাজার তিনেক মানুষের কাঙালি ভোজের আয়োজন করেন। তাতেই ইউপি চেয়ারম্যানের রোগমুক্তির খবরটি চাওর হয়ে যায়। ওই নলকূপ থেকে পানি নেওয়ার জন্য বিভিন্ন জেলা থেকে হাজার হাজার নারী-পুরুষ আসতে শুরু করেন। অনেকে এখানে বসেই পানি পান করেছেন। আবার অনেকে এই পানিতে গোসল করেছেন। 

খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, যারা ওই টিউবওয়েলের পানি নিতে এসেছেন, তারা কেউ বলতে পারছেন না, কারও রোগ ভালো হয়েছে কি না।

এরপর মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে কয়েকজন সংবাদকর্মী বিষয়টি নিয়ে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে দেখা করেন এবং টিউবওয়েলের স্থানে নারীদের ইভটিজিং, উশৃঙ্খল যুবকদের আনাগোনা, আইন শৃঙ্খলার অবনতির হচ্ছে এমন অভিযোগ করে তা বন্ধের দাবি জানান। এ সময় জেলা প্রশাসক সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করেন এবং তাৎক্ষণিক সেখানকার চেয়ারম্যানকে টিউবওয়েলটি উঠিয়ে নেয়ার নির্দেশ দেন।

প্রসঙ্গত, গত রমজানে মধুহাটি ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে মাঠের কৃষকদের পানি পানের জন্য একটি টিউবওয়েল স্থাপন করা হয়। গত সপ্তাহ দুয়েক আগে গুজব রটিয়ে দেয়া হয় এই টিউবওয়েলের পানি পান করলে সব রোগ সেরে যায়। এরপর থেকে প্রতিদিন রোগ মুক্তির আশায় পানি পান করতে এই নলকূপে ভিড় করছিলেন।


(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)
 

মন্তব্য