শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ২২ মিনিট আগে

‘পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায়’ স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মীকে হত্যা

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

‘পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায়’ স্বেচ্ছাসেবক লীগ কর্মীকে হত্যা

বগুড়ার শাজাহানপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগের এক কর্মীকে জঙ্গলে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার চান্দাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, নিহতের নাম জাব্বারুল ইসলাম (৩৫)। তিনি শাজাহানপুর উপজেলার খোট্টাপাড়া ইউনিয়নের চান্দাই গ্রামের মৃত আবদুল কুদ্দুসের একমাত্র সন্তান ছিলেন।

কৃষিকাজ ও ব্যবসার পাশাপাশি খোট্টাপাড়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য ছিলেন জব্বারুল।

পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে এ হত্যাকাণ্ডের কারণ জানাতে পারেনি।

তবে স্থানীয়দের দাবি, এক প্রতিবেশীকে পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় তিনি নৃশংস এ হত্যকাণ্ডের শিকার হয়েছেন।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানান, জাব্বারুল বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে খাওয়া শেষে টেলিভিশন দেখছিলেন। এ সময় মোবাইল ফোন পেয়ে তিনি বাড়ি থেকে বের হন। দীর্ঘ সময় বাড়িতে না ফেরায় স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যরা তাকে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

একপর্যায়ে বাড়ির পেছনে একটি জঙ্গলে গোঙ্গানির শব্দ পান। সেখান থেকে রক্তাক্ত জাব্বারকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্বৃত্তরা তার মাথা, ঘাড়সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়েছে ও ছুরিকাঘাত করেছে।

শাজাহানপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি শফিকুল ইসলাম জানান, জাব্বারুল তাদের সংগঠনের খোট্টাপাড়া ইউনিয়ন শাখার সদস্য ছিলেন। তিনি জানান, শোনা যাচ্ছে নারীঘটিত কারণে বাধা দেওয়ায় তাকে হত্যা করা হয়েছে।

শাজাহানপুর থানার ওসি আজিমউদ্দিন জানান, মরদেহ উদ্ধার করে শজিমেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।এক সন্তানের জনক জাব্বারুলের হত্যার কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানা সম্ভব হয়নি।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য