মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ৪১ মিনিট আগে

ম্যাজিক লণ্ঠনের ১৭তম সংখ্যা প্রকাশ

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

ম্যাজিক লণ্ঠনের ১৭তম সংখ্যা প্রকাশ

চলচ্চিত্রের হারিয়ে যাওয়া মানুষদের খোঁজ করে বিশদ তুলে ধরার প্রত্যয় নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে চলচ্চিত্রবিষয়ক ষাণ্মাসিক গবেষণা পত্রিকা ম্যাজিক লণ্ঠন। পত্রিকাটির ১৭তম সংখ্যা (জুলাই ২০১৯) ইতিমধ্যেই প্রকাশ হয়েছে বলে জানিয়েছেন পত্রিকাটির সম্পাদক কাজী মামুন হায়দার।

এবারের সংখ্যায় এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী ও ইতিহাস থেকে হারিয়ে যাওয়া মায়া হাজার ব্যাপারে লেখা হয়েছে।

পত্রিকাটির সম্পাদক কাজী মামুন হায়দার বলেন, এবারের সংখ্যায় বিভিন্ন বিষয়ে মোট ৩৭টি প্রবন্ধ রয়েছে। চলতি সংখ্যার শুরুতে রয়েছে সদ্য জীবনের মঞ্চ ছেড়ে চলে যাওয়া চলচ্চিত্র সংসদ আন্দোলনের প্রাণপুরুষ মুহম্মদ খসরু, নির্মাতা আমজাদ হোসেন, মৃণাল সেন, বেরনার্দো বের্তালুচি ও সিনেমাটোগ্রাফার আনোয়ার হোসেনের স্মরণে বেশ কয়েকটি প্রবন্ধ। 

তিনি আরো বলেন, এছাড়া বর্তমানে উন্নত ক্যামেরা থেকে শুরু করে মুঠোফোনে নানা রকম ভিডিও কনটেন্ট তৈরি করে সেগুলোকে চলচ্চিত্র হিসেবে দাবি করলেও আদৌ তা চলচ্চিত্র হয়ে উঠছে কিনা সে ব্যাপারে বিস্তারিত তথ্য উঠে এসেছে আরেকটি প্রবন্ধে।

বাংলাদেশের গল্প বলা কমলা রকেট বাংলাদেশকে কতোটুকু রিপ্রেজেন্ট করতে পেরেছে, তা নিয়েও রয়েছে একটি প্রবন্ধ। এছাড়া চলচ্চিত্রের শত বছর পূর্তিতে নির্মিত ইরানি নির্মাতার ভিন্নধর্মী উপস্থাপন সালাম সিনেমা নিয়ে রয়েছে একটি বিশ্লেষণ। রয়েছে চিরবিদায় নেওয়া বাপ্পাদিত্যের একটি সাক্ষাৎকার ও তার সর্বশেষ চলচ্চিত্র সোহরা বিজ্র নিয়ে দুটি লেখা।

তিনি আরো বলেন, ম্যাজিক লণ্ঠন প্রতি সংখ্যাতেই চেষ্টা করে চলচ্চিত্রের হারিয়ে যাওয়া মানুষদের খোঁজ করে বিশদ তুলে ধরার। এবার খোঁজ করা হয়েছে এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী ও ইতিহাস থেকে হারিয়ে যাওয়া মায়া হাজারিকাকে। সঙ্গে রয়েছে ‘অভিনয় জীবন : ভুল করতে করতে শেখা, আবার নতুন ভুল করা’ শিরোনামে জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী রাইসুল ইসলাম আসাদের উপস্থাপনায় ম্যাজিক লণ্ঠন কথামালা-৮। এছাড়া এ সংখ্যায় ম্যাজিক লণ্ঠনের নিয়মিত অন্যসব আয়োজনও রয়েছে।

৪১৭ পৃষ্ঠার এ পত্রিকাটির মূল্য রাখা হয়েছে ১৮০ টাকা। পত্রিকাটি পাওয়া যাবে, ঢাকায় বিদিত, তক্ষশীলা, পাঠক সমাবেশ, বেঙ্গল বই, নোকতা ও বাতিঘরে। রাজশাহীতে বিদ্যাসাগর, বুকপয়েন্ট, নিউমার্কেটে, সিলেটে বইপত্র, চট্টগ্রামে বাতিঘরে, ময়মনসিংহে সংকলনে, বিপুল ফটোস্ট্যাট (বাকৃবি), কুষ্টিয়ায় বুক সেন্টার এবং কলকাতায় মনফকিরা ও ধ্যানবিন্দুতে। এছাড়া ঢাকা, রাজশাহী, জগন্নাথ, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ এবং জাহাঙ্গীরনগর ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগেও পাওয়া যাবে।

প্রসঙ্গত, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘ম্যাজিক লণ্ঠন’নামে এ সংগঠনটি যাত্রা শুরু করে ২০১১ খ্রিস্টাব্দে। জানুয়ারি ও জুলাই মাসে পত্রিকাটি নিয়মিত প্রকাশ হয়। এছাড়া প্রতি রবিবার চলচ্চিত্রবিষয়ক ও বুধবারে সাধারণ পাঠচক্র আয়োজন করে। এছাড়া ‘ম্যাজিক লণ্ঠন’-এর প্রযোজনায় সংগঠনটির সদস্যরা নিয়মিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রও নির্মাণ করেন

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য