শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১১ ঘন্টা ৩৪ মিনিট আগে

৩ দিনের ডেঙ্গুজ্বরে ঝরল প্রাণ

মাদারীপুর প্রতিনিধি

৩ দিনের ডেঙ্গুজ্বরে ঝরল প্রাণ

৩ দিনের ডেঙ্গুজ্বরে মারা গেলেন মাদারীপুরের বচরের যুবক। মৃত যুবকের নাম রিপন হালাদার (৩০)। রিপন শিবচর উপজেলার সন্নাসীরচর ইউনিয়নের রাজারচর গ্রামের হাবিবুর রহমান হাওলাদারের ছেলে।

সংশ্লিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, তিনদিন আগে জ্বরে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা থেকে আসে। এসময় রিপন মাদারীপুরের শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিতে যায়। তার ডেঙ্গু শনাক্ত করে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হতে নির্দেশ দেয় শিবচর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পরে রিপন ফরিদপুর হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে বাড়িতে চলে যায়। গতকাল রাতে রোগীর অবস্থা গুরুতর হলে আবার শিবচর হাসপাতালে আসে। এসময় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার গভীর রাতে রিপন মারা যায়। রিপন ঢাকায় একটি গার্মেন্টেসে কাজ করতো বলে জানা গেছে।

শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের (টিএইচও) মোকাদ্দেস আলি জানান, চিকিৎসাধীন অবস্থায় রিপন নামে এক রোগী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। রিপন ঢাকা থেকে আক্রান্ত হয়ে শিবচরে এসেছিল। তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে বলা হলেও তিনি চিকিৎসা না নিয়ে বাড়িতে চলে যায়। এরপর গত রাতে আবার হাসপাতালে আসলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত হয়।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার টেকেরহাট এলাকার রুবেল হোসেনের মেয়ে শারমিন আক্তার (২২), বুধবার রাতে ঢাকার ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে মারা যান শিবচরের
সলুবেপারীরর কান্দি এলাকার বাবু খানের ছেলে ফারুক খান (২২) ও তার আগের দিন মঙ্গলবার কালকিনি উপজেলার পৌরসভার ঠেঙ্গামারা গ্রামের বারেক বেপারীর ছেলে জুলহাস বেপারী (৪৫) ঢাকায় মারা গেছেন।

এছাড়াও শনিবার নাদিরা বেগম নামে এক নারী কালকিনিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এনিয়ে মাদারীপুর জেলার পাঁচজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলেন। এতে উদ্বিগ্ন মাদারীপুরের সাধারণ মানুষ।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/রিজভী/তৌহিদ)

মন্তব্য