সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১৪ মিনিট আগে

ডুমুরিয়ায় হত্যা মামলায় যুবকের ফাঁসি

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

ডুমুরিয়ায় হত্যা মামলায় যুবকের ফাঁসি

খুলনার ডুমুরিয়ায় শিখা ওরফে মুক্তা বেগম (৩৫) নামের এক নারীকে হত্যার দায়ে আব্দুল্লাহ ওরফে সাকিব (২৩) নামের এক যুবককে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার খুলনার জেলা ও দায়রা জজ মশিউর রহমান চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত সাকিব বগুড়ার শাহাজাহানপুর সোনাইদিঘী এলাকার মোকলেছুর রহমানের ছেলে। ২০১৭ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি রাতে চুকনগর বাজার এলাকায় গাজী আবাসিক হোটেলে শিখা ওরফে মুক্তা বেগমকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়।

মুক্তা বটিয়াঘাটা উপজেলার ভান্ডারকোট গ্রামের আব্দুল খালেক ফকিরের মেয়ে। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) এনামুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

জানা যায়, মোবাইলে পরিচয়ের সূত্র ধরে ২০১৭ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি ওই দুইজন স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে হোটেলে ওঠে। রাতে দু’জনের মধ্যে বাক-বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে মুক্তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে আব্দুল্লাহ পালিয়ে যায়।

পরের দিন হোটেল থেকে মুক্তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ডুমুরিয়া পুলিশের এসআই মো. রুহুল আযম বাদি হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। 

তদন্তকর্মকর্তা এসআই নিমাই চন্দ্র কুন্ডু ২০১৮ সালের ৩০ মার্চ সাকিবকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। মামলায় মোট ১৯ জনের স্বাক্ষ্য গ্রহণ করেছে আদালত। সাজাপ্রাপ্ত আসাসি সাকিব পলাতক রয়েছেন। 


(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)

মন্তব্য