বৃহস্পতিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০৩ ঘন্টা ২২ মিনিট আগে

রক্তের চিহ্ন দেখে যুবকের দেহ ও মাথা উদ্ধার

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

রক্তের চিহ্ন দেখে যুবকের দেহ ও মাথা উদ্ধার

রক্তের চিহ্ন দেখে নিহতের বাড়ি থেকে প্রায় ৩০০ মিটার দূর থেকে মাথাবিহীন দেহ মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করল পুলিশ। পরে প্রায় ৮০০ মিটার দূর থেকে মাথা মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার আলোকঝাড়ী ইউনিয়নের শুশুলী গ্রাম থেকে এ মরদেহ উদ্ধার করা হয়। 

হতভাগা ওই যুবকের নাম গোলাপ হোসেন (২৭)। তিনি হোসেন খানসামা উপজেলার আলোকঝাড়ী ইউনিয়নের শুশুলী গ্রামের মৃত আতিক ইসলামের ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সোমবার ঈদের দিন খাবার খেয়ে গোলাপ হোসেন নিজ কক্ষে ঘুমিয়ে পড়েন। পরের দিন মঙ্গলবার সকালে বাড়ির পার্শ্বে স্থানীয় লোকজন রক্ত দেখে ইউপি সদস্য ও পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে রক্তের চিহ্ন দেখে দেখে নিহত গোলাপের বাড়ি থেকে প্রায় ৩০০ মিটার দূরে তার মাথাবিহীন দেহ মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করে। এরপর প্রায় ৮০০ মিটার দূরে গোলাপের মাথা মাটির নিচ থেকে উদ্ধার করে পুলিশ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে খানসামার থানার ওসি (তদন্ত) এসএম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে নিহতের শয়নকক্ষসহ বিভিন্ন স্থান থেকে আলামত উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে তাকে নিজ শয়নকক্ষেই গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের সৎ মা ও সৎ ভাইসহ তিনজনকে থানায় আনা হয়েছে। 

লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে ময়নাতদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য