বুধবার, ২৩ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০১ মিনিট আগে

মিন্নিকে কেন জামিন দেয়া হবে না- তা জানতে রুল জারি

অনলাইন ডেস্ক:

মিন্নিকে কেন জামিন দেয়া হবে না- তা জানতে রুল জারি

বরগুনায় চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার মামলার প্রধান সাক্ষী ও তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে কেন জামিন দেয়া হবে না- তা জানতে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। 

এক সপ্তাহের মধ্যে এ রুলের জবাব দিতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে ২৮ আগস্ট আদালতে তলব করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

মিন্নির জবানবন্দির বিষয়ে বরগুনার পুলিশ সুপারের কাছে ব্যাখ্যা ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে (আইও) নথিসহ তলব করেছেন আদালত। আগামী ২৮ আগস্ট এ মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

সোমবার এ মামলার আংশিক শুনানি শেষে বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানির জন্য আজকের দিন নির্ধারণ করেছিলেন।

মিন্নির পক্ষে আজ জামিন আবেদনটি উপস্থাপন করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জেডআই খান পান্না। তাকে সহযোগিতা করেন আইনজীবী মাক্কিয়া ফাতেমা ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারোয়ার হোসেন।

এর আগে সোমবার জামিন আবেদনের শুনানির শুরুতে জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জেডআই খান পান্না আদালতে বলেন, ‘মাই লর্ড, হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চে আমরা জামিন আবেদন করেছিলাম। আদালত রুল দিতে চেয়েছিলেন। আমরা নিইনি। আমরা আবেদন ফেরত নিয়েছি। এখন পুনরায় আপনার কাছে জামিনের আবেদন করেছি।’

জেডআই খান পান্না আরও বলেন, এ মামলার এফআরআইয়ে আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির নাম নেই। তিনি ছিলেন মামলার প্রধান সাক্ষী। গত ১৬ জুলাই মিন্নিকে গ্রেপ্তারের পর তাকে রিমান্ডে নেয়া হয়। পুলিশ তাকে রিমান্ডে নেয়ার আগেই পুলিশলাইনসে নিয়ে যায়।

পুরুষ পুলিশের অধীনে তাকে রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতন করে দোষ স্বীকার শেখানো বক্তব্য দিতে বাধ্য করা হয়। আদালতে হাজির করে পুলিশ দাবি করে, মিন্নি ১৬৪ ধারায় দোষ স্বীকার করে বক্তব্য দিয়েছেন।

পরে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে মিন্নি এসব বক্তব্য প্রত্যাহারের আবেদন করেন।এমনকি মিন্নিকে নিম্ন আদালতে উপস্থাপনের পর কোনো আইনজীবী তার পক্ষে দাঁড়াননি। মিন্নির পক্ষে মামলা না লড়তে আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে চাপ সৃষ্টি করা হয়। পরে মিন্নি নিজেই আদালতে বলেন, আমি নির্দোষ।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)

মন্তব্য