অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন মিন্নি

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

 অবশেষে জামিনে মুক্তি পেলেন মিন্নি

ছবি সংগৃহীত

হাইকোর্ট থেকে জামিনাদেশ পাওয়ার পর বরগুনা কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছেন চাঞ্চল্যকর রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী থেকে আসামি হওয়া তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি। 

আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকায় মুক্তি পর কারা ফটকে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি। তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে সরাসরি শহরের মইঠা এলাকায় বাবার বাসায় নেওয়া হয়।

মঙ্গলবার (০৩ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে কারাগার থেকে মুক্তি পান মিন্নি। এ সময় কারা ফটকে মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হক কিশোর, ভাই আবদুল মুহিত কাফি, তার আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম এবং অ্যাডভোকেট মোস্তফা কাদের উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বেলা ১২টার দিকে হাইকোর্টের দেওয়া মিন্নির জামিনাদেশ বরগুনা আদালতে পৌঁছায়। হাইকোর্টের আদেশের সই করা কপি বরগুনার আদালতে এসে পৌঁছানোর সঙ্গে সঙ্গেই মিন্নির পক্ষে জামিননামা (বেলবন্ড) দাখিল করেন তার আইনজীবী মাহবুবুল বারী আসলাম। এরপর সব দাফতরিক কাজ শেষ করে বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে জামিনাদেশ নিয়ে কারাগারে যান মিন্নির আইনজীবী আসলাম।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বরগুনার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সিরাজুল ইসলাম গাজীর আদালতে এ মামলার ১৪ আসামিকে হাজির করা হয়। পরে আদালতের কার্যক্রম শেষে এ মামলায় গ্রেপ্তার ৬ কিশোরকে খুলনার শিশু-কিশোর সংশোধনাগারে এবং অন্যদের জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য দিন ধার্য করা হয়েছে ১৮ সেপ্টেম্বর।

গত ২৯ আগস্ট বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ মিন্নির জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। তবে জামিনের শর্ত হিসেবে বলা হয়েছে, মিন্নি তার বাবার জিম্মায় থাকবেন এবং মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলতে পারবেন না।

রায়ের পরে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সরওয়ার হোসাইন বাপ্পী জানিয়েছেন, মিন্নিকে কেন জামিন দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছিলেন আদালত। সে রুল যথাযথ ঘোষণা করে মিন্নিকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। যেহেতু সে নারী এবং তার বাবার জিম্মায় থাকবে, তাই তাকে জামিন দেওয়া হয়েছে। 

তবে সে এ জামিনের অপব্যবহার এবং মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলতে পারবেন না। কিন্তু সে জামিনের শর্ত অপব্যবহার করে তাহলে নিম্ন আদালত তার জামিন বাতিল করতে পারবেন। উই ভেরি শকড (আমরা মর্মাহত)। 

১ সেপ্টেম্বর (রোববার) মিন্নির জামিন স্থগিত চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। পরে সোমবার (২ সেপ্টেম্বর) আপিল বিভাগের অবকাশকালীন চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর আদালত রাষ্ট্রপক্ষের আবেদনের ওপর 'নো অর্ডার' আদেশ দেন। ফলে মিন্নির জামিন বহাল থাকে এবং তার মুক্তিতে বাধা নেই।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল)

পরবর্তী খবর

মিতু হত্যা : জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেফতার

অনলাইন ডেস্ক

মিতু হত্যা : জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাবেক এসপি বাবুল আক্তার গ্রেফতার

পাঁচ বছর আগে চট্টগ্রামে স্ত্রী মিতু হত্যা মামলায় সাবেক পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

মঙ্গলবার (১১ মে) সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতরা করা হয়। এর আগে মিতু হত্যা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঢাকা থেকে বাবুল আক্তারকে চট্টগ্রামে নেওয়া হয়।

২০১৬ সালের ৫ জুন ভোরে চট্টগ্রাম শহরের জিইসি মোড়ে ছেলেকে স্কুলবাসে তুলে দিতে যাওয়ার সময় কুপিয়ে এবং গুলি করে হত্যা করা হয় মাহমুদা খানম মিতুকে। তিনি সে সময়ের পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী ছিলেন। 

ঘটনার সময় পুলিশ সুপার বাবুল আক্তার অবস্থান করছিলেন ঢাকায়। চট্টগ্রামে ফিরে তিনি পাঁচলাইশ থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এর কিছুদিন পর বাবুল আক্তারের শ্বশুর মোশাররফ হোসেন মিতু হত্যাকাণ্ডের জন্য বাবুলকে দায়ী করেন। প্রথম দিকে মামলাটি ডিবি তদন্ত করলেও ২০২০ সাল থেকে মামলাটি তদন্ত করছে পিবিআই।

news24bd.tv/আলী

পরবর্তী খবর

অপরাধের দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন হেফাজত নেতা জাকারিয়া

অনলাইন ডেস্ক

অপরাধের দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন হেফাজত নেতা জাকারিয়া

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ এর সদ্য বিলুপ্ত কমিটির প্রচার সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়েজী অপরাধের দায় স্বীকার করে চট্টগ্রাম  আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

বিস্তারিত আসছে...

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

শুনানির আগ পর্যন্ত সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের গাছ কাটা বন্ধ: হাইকোর্ট

অনলাইন ডেস্ক

শুনানির আগ পর্যন্ত সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের গাছ কাটা বন্ধ: হাইকোর্ট

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে রেস্টুরেন্ট স্থাপনের জন্য গাছ কাটার বিষয়ে আদালত অবমাননার আবেদনের ওপর আগামী ২০ মে শুনানির দিন ধার্য করেছেন হাইকোর্ট। আর এই সময়ে যেন গাছ কাটা না হয় সেটি নিশ্চিত করতে অ্যাটর্নি জেনারেলকে বলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১১ মে) বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের হাইকোর্ট বেঞ্চে বিষয়টি শুনানির জন্য উঠে। আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন।

এর আগে রোববার (৯ মে) সরকারের এক সচিবসহ তিন কর্মকর্তার নামে হাইকোর্টে আদালত অবমাননার এ আবেদনটি দায়ের করা হয়েছিলো। একইসঙ্গে গাছ কাটা বন্ধ করে রেস্টুরেন্টের কার্যক্রম স্থগিত এবং যে নকশার ভিত্তিতে এ কার্যক্রম করা হচ্ছে তা আদালতে দাখিল করার নির্দেশনা চাওয়া হয়।

আরও পড়ুন


দৌলতদিয়া ঘাটে পদ্মায় পড়ে যাওয়া মাইক্রোবাস উদ্ধার, চালক নিখোঁজ

আল আকসা ইস্যু: হামাগুড়ি দিয়ে হলেও আমরা পৌঁছাব ইনশাআল্লাহ

কালবৈশাখী ঝড়ে দৌলতদিয়া ঘাটের পন্টুন ছিঁড়ে নদীতে মাইক্রোবাস

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর থেকে দাউদকান্দি পর্যন্ত তীব্র যানজট


গত বৃহস্পতিবার ৪৮ ঘণ্টার সময় দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষ, গণপূর্ত বিভাগের চিফ ইঞ্জিনিয়ার মো. শামিম আখতার এবং চিফ অর্কিটেক্ট অব বাংলাদেশ মীর মনজুর রহমানকে ই-মেইল যোগে নোটিশ পাঠানো হয়েছিলো।

নোটিশে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কাটা বন্ধ করে রেস্টুরেন্ট/দোকান স্থাপনের কার্যক্রম বাতিল করার জন্য বলা হয়েছে, অন্যথায় আদালত অবমাননার অভিযোগ দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন মনজিল মোরসেদ।

news24bd.tv আহমেদ

পরবর্তী খবর

সংখ্যালঘুদের বাড়ি-ঘরে হামলা: ভিডিও ফুটেজে ধরা আ.লীগ নেতা

মো.বুরহান উদ্দিন, সুনামগঞ্জ

সংখ্যালঘুদের বাড়ি-ঘরে হামলা: ভিডিও ফুটেজে ধরা আ.লীগ নেতা

সুনামগঞ্জের শাল্লার উপজেলার সংখ্যালঘু নোয়াগাঁও গ্রামে হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা মামুনুল হক সমর্থকদের হামলা লুটপাট ও ভাংচুরের ঘটনায় ভিডিও ফুটেজ দেখে আরও ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)।

গ্রেপ্তাররা হলো- দিরাই উপজেলার সরমঙ্গল ইউনিয়নের ধনপুর গ্রামের আব্দুল রশিদের ছেলে হান্নান মিয়া (৫০) ও পার্শ্ববর্তী চন্ডিপুর গ্রামের সোয়েব মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম (২২)।

সোমবার (১০ মে) বিকালে জেলা ডিবি পুলিশের একটি দল তাদের নিজ গ্রাম থেকে গ্রেফতার করে। গত ২ মে থেকে নোয়াগাঁও গ্রামের ঘটনায় তিনটি মামলা তদন্ত করছে ডিবি পুলিশ।

সুনামগঞ্জ পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)’র অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইকবাল বাহার জানান, নোয়াগাঁও গ্রামের ঘটনার ভিডিও ফুটেজ দেখে দুইজনকে শনাক্ত করে আজ সোমবার বিকালে তাদেরকে নিজ গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আগামীকাল মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করা হবে।’

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

মামুনুল ও রফিকুলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ

অনলাইন ডেস্ক

মামুনুল ও রফিকুলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ

হেফাজতে ইসলামের নেতা মাওলানা মামুনুল হক ও রফিকুল ইসলাম মাদানীকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। 

আজ সোমবার (১০ মে) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নিভানা খায়ের জেসি শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

রিমান্ড শেষে সকালে তাদের আদালতে হাজির করেন মামলা সংশ্লিষ্ট তদন্ত কর্মকর্তারা। একই সঙ্গে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে গত ২৬ এপ্রিল মতিঝিল ও পল্টন থানার নাশকতার দুই মামলায় মামুনুলের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এছাড়া গত ১৯ এপ্রিল মোহাম্মদপুর থানায় হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাত করে গুরুতর জখম ও চুরি মামলায় আদালত তার সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

news24bd.tv / কামরুল  

পরবর্তী খবর