বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১৩ মিনিট আগে

৩৫ কাঠুরিয়া হত্যা: বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

ফাতেমা জান্নাত মুমু, রাঙামাটি থেকে

৩৫ কাঠুরিয়া হত্যা: বিচার দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

রাঙামাটির লংগদুতে ৩৫ কাঠুরিয়া হত্যার সুষ্ঠু তদন্ত ও খুনিদের বিচারসহ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে পুর্নবাসনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম সম-অধিকার আন্দোলন।

সোমবার দুপুরে শহরের একটি রেস্টুরেন্টে লংগদু পাকুয়াখালী ট্রাজেডি দিবস উপলক্ষে সংগঠনটির উদ্যোগে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম সম-অধিকার আন্দোলন রাঙামাটি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর কামাল। এসময় পার্বত্য চট্টগ্রাম সম-অধিকার আন্দোলন রাঙ্গামাটি জেলা শাখার সিনিয়র সহসভাপতি মো. শাহজাহান, সহসভাপতি মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর কামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু বক্কর ছিদ্দিক উপস্থিত ছিলেন।

সংগঠটির নেতারা অভিযোগ করেন, শান্তি চুক্তির আগে এ গণহত্যা চালিয়েছিল সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা। কিন্তু চুক্তির পরও এ হত্যাকাণ্ড তারা অব্যাহত রেখেছে। কিন্তু চুক্তি করা হয়েছিল পাহাড়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা ও সশস্ত্র কর্মকাণ্ড বন্ধ করার জন্য। এ ঘটনার ২২বছরেও উপজাতি সন্ত্রাসীদের দৌরত্ম্য কমেনি। উল্টো তারা এখন আরও সক্রিয়।

এসময় সংগঠনের নেতারা রাঙামাটি লংগদুর ৩৫ কাঠুরিয়া হত্যাকাণ্ডসহ পার্বত্য চট্টগ্রামে সংঘটিত সকল হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার ও ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের পুর্ণবাসসহ নয় দফা দাবি তুলে ধরেন।

বলেন, অবিলম্বে সরকারের যদি এসব উপজাতি আঞ্চলিক দলের সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর এবং কঠিন ব্যবস্থা গ্রহণ না করে পার্বত্যবাসী আন্দোলনে নামতে বাধ্য হবে।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৬ সালের ৯ সেপ্টম্বর, তৎকালীন শান্তিবাহিনী নামে একটি উপজাতি সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ রাঙামাটি লংগদু উপজেলার ৩৫জন কাঠুরিয়াকে নিমর্মভাবে নির্যাতনের পর হত্যা করে। সে থেকে এ দিনটিকে পার্বত্যাঞ্চলের মানুষ ‘পাকুয়াখালী ট্রাজেডি দিবস’ নামে পালন করে আসছে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য