শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১০ মিনিট আগে

বাংলাদেশ-ওমান অনূর্ধ্ব-২১ হকি আজ থেকে

অনলাইন ডেস্ক

আগামী বছর মার্চে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে জুনিয়র এশিয়া কাপ। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের লক্ষ্যেই আন্তর্জাতিক এই আসরটি আয়োজনের স্বত্ব পেয়েছে বাংলাদেশ হকি ফেডারেশন। আর দেশের মাটিতে এই আসরে সাফল্য পেতে গত ২২ জুলাই থেকে দল গঠনের কার্যক্রম শুরু করেছে ফেডারেশন।

সেই আসরের প্রস্তুতির অংশ হিসেবেই ওমান অনূর্ধ্ব-২১ দল এখন ঢাকায়। আজ থেকে শুরু হয়ে এই সিরিজ চলবে ১৫ অক্টোবর পর্যন্ত। সবকটি ম্যাচই হবে মওলানা ভাসানী জাতীয় হকি স্টেডিয়ামে।

হকি মাঠে সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশ আর ওমানের ম্যাচে থাকে অন্যরকম প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঝাঁজ। এই সিরিজেও সেটি থাকবে তা বলে দেওয়াই যায়। তবে দলের কোচদের চাওয়াটা একটু ভিন্ন। এই সিরিজের মধ্য দিয়ে শিষ্যদের আন্তর্জাতিক ম্যাচের অভিজ্ঞতা দেওয়া এবং প্রস্তুতির ঘাটতিগুলো নিরূপণ করে তা নিয়ে ভবিষ্যতে কাজ করাটাই দু’কোচের মূল লক্ষ্য।

বাংলাদেশ দলের কোচের দায়িত্ব পালন করছেন সাবেক তারকা খেলোয়াড় মামুনুর রশীদ। আর ওমান দলটির দেখভালের দায়িত্ব পাকিস্তানের সাবেক তারকা তাহির জামানের। যিনি বাংলাদেশ জাতীয় দলের উপদেষ্টা কোচের দায়িত্বও অতীতে পালন করেছেন।

মামুন নিজের দল গঠন প্রক্রিয়াটা কাল জানিয়েছেন এভাবে, ‘আগামী বছর মার্চে জুনিয়র এশিয়া কাপকে সামনে রেখে আমরা এখন থেকেই একটি শক্তিশালী দল গড়তে কাজ করছি। ২২ জুলাই কার্যক্রম শুরু হয়েছিল। উন্মুক্ত ট্রায়ালে শুরুতে ছিল ১১০ জন। এরপর সেটা ধাপে ধাপে কমিয়ে এখন ৩৬ জনে ঠেকেছে। এদের মধ্য থেকে ২৪ জনকে নিয়ে ওমানের বিপক্ষে সিরিজের জন্য দল করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫ জনের জাতীয় দলের হয়ে খেলার অভিজ্ঞতা আছে। বাকিরা সবাই নতুন। তবে তারা চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত।’

ওমান দলটিও এই আসরকে সামনে রেখে জোর প্রস্তুতি নিচ্ছে।

মামুন জানালেন, ‘ওমান ভালো দল। জার্মানি, পাকিস্তান ও মালয়েশিয়ায় খেলে এসেছে তারা। তবে আমরা সব ম্যাচ জেতার জন্য খেলব। জুনিয়র এশিয়া কাপকে লক্ষ রেখে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি এবং সেই টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে আমরা অন্তত ২৫ থেকে ৩০টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে চাই।’ এই সিরিজের পর আগামী ডিসেম্বরে ওমানে বাংলাদেশের ফিরতি সিরিজ খেলতে যাওয়ার কথা রয়েছে। ওমানের কোচ তাহির জামান এই সিরিজ সম্পর্কে বলেন, ‘দুই দলকেই এই সিরিজটা প্রস্তুতিতে সহায়তা করবে। বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানাই আমাদের আমন্ত্রণ জানানোয়। বাংলাদেশ সম্পর্কে আমি ভালো জানি। এখানে খেলেছি, কোচিং করিয়েছি। মূল লক্ষ্য হচ্ছে দলটাকে একটা ব্যালেন্স কম্বিনেশনে নিয়ে যাওয়া।’

বাংলাদেশ দলে ৫ জন জাতীয় দলের খেলোয়াড় থাকলেও ওমানের এই দলটিতে রয়েছে মাত্র একজন জাতীয় দলের খেলোয়াড়। তাহির জামান তাই তার শিষ্যদের জন্য আন্তর্জাতিক ম্যাচের অভিজ্ঞতার মঞ্চ হিসেবে দেখছেন।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য