শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০১ মিনিট আগে

স্বামীর গলায় ওড়না পেঁচানো ও স্ত্রীর দেহ মেঝেতে

অনলাইন ডেস্ক

স্বামীর গলায় ওড়না পেঁচানো ও স্ত্রীর দেহ মেঝেতে

রংপুরের গঙ্গচড়ায় গলায় ওড়না পেঁচানো স্বামীর মরদেহ এবং ঘরের মেঝে থেকে স্ত্রীর নিথর দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃতরা হলেন- স্বামী সাবের আলী (৫০) ও স্ত্রী মুক্তারা বেগম (৪৩)।

মঙ্গলবার উপজেলার ওমর বালাটারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেন গঙ্গাচড়া মডেল থানার ওসি মসিউর রহমান।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের বাসিন্দা সাবের আলী ও মুক্তারা বেগমের ঘরে ৩ সন্তান রয়েছে। ঘটনার দিন বড় মেয়ে সাথী বেগম (১৪) পাশে দাদির বাড়িতে ছিল। ছোট মেয়ে সাজেদা বেগম (১২) ও ছেলে ওমর আলী (৫) নিজ বাড়িতে ছিল।

সোমবার রাতে বাবা-মা দুজনে ঘরের ভেতর ঘুমিয়ে ছিল বলে মেয়ে সাজেদা জানায়। মঙ্গলবার সকাল বেলা সাজেদা কোচিং করতে যায়। কোচিং শেষে বাসায় এসে ঘরের দরজা বন্ধ দেখে একপর্যায়ে ধাক্কা দেয়। পরে দরজা খুলে দেখতে পায় সেখানে ঘরের ভেতর বাবার মরদেহ গলায় ওড়না পেঁচানো অবস্থায় ঝুঁলে আছে। মায়ের মরদেহ মেঝেতে পড়ে আছে। 

পুলিশের এসআই মকবুল হোসেন জানান, স্ত্রী মুক্তারা বেগমকে ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর স্বামী সাবের আলী নিজে ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যা করেছেন। এরকম ধারণা করা হচ্ছে।

ওসি মসিউর রহমান বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামী আত্মহত্যা করেছেন।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য