বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০১ ঘণ্টা ২৮ মিনিট আগে

সিডনি কাঁপালো মাইলস্ ও অর্ণব

মাসুম বিল্লাহ, অস্ট্রেলিয়া থেকে

সিডনি কাঁপালো মাইলস্ ও অর্ণব

সিডনির নিউ সাউথ ওয়েলস ইউনিভার্সিটির সায়েন্স থিয়েটার হলে এক জমকালো সংগীতসন্ধ্যায় সুরের মূর্ছণা ছড়িয়েছেন সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী অর্ণব এবং সাফিন আহমেদসহ মাইলস্ ব্যান্ডের সকল কলাকুশলীরা।

‘মিউজিক ফেস্ট-২০১৯’ নামে এই কনসার্টের সফল আয়োজক সিডনির স্বনামধন্য ইভেন্ট অর্গানাইজার গ্রিনফিল্ড এন্টারটেইনমেন্ট। বাংলাদেশি এই গুণী শিল্পীরা একের পর এক জনপ্রিয় বাংলা গানে প্রবাসী বাংলাদেশিদের হৃদয় জয় করে নিয়েছেন। প্রবাসী বাঙালিরাও উচ্ছসিত এমন আনন্দঘন সংগীতসন্ধ্যায় অংশগ্রহণ করতে পেরে। পুরো সায়েন্স থিয়েটার হলের মিলনায়তন ছিলো দর্শককে পরিপূর্ণ।

অনুষ্ঠানে প্রত্যাশিত দর্শকের চেয়েও বেশি দর্শক টিকিট কেটে মিউজিক ফেস্ট-২০১৯-এর অনুষ্ঠানটি উপভোগ করেছেন।
শিল্পী সাফিন আহমেদ তথা মাইলস ব্যান্ড এবং অর্ণবও দারুণ খুশি প্রবাসে এমন দর্শক সমাগম দেখতে পেরে।

এমনকি অনুষ্ঠানে অনেকেই পরিবারের সবাইকে নিয়ে যোগদান করেছেন, বাদ যায়নি ছোট্ট শিশুরাও।

কনসার্টের উল্লেখযোগ্য দিক ছিল দশকের পর দশক ধরে কয়েক প্রজন্মের দর্শকদের সুরের মূর্ছনায় মাতিয়ে রাখা ‘মাইলস’ ব্যান্ডের ৪০ বছরে পদার্পণ।

অর্ণবের মঞ্চে ফিরে আসাটাও সিডনিবাসি উদযাপন করেছে বিপুল আনন্দে। মঞ্চে বড় চমক জানা যায় দীর্ঘদিন পর
সিডনিতে দেখা হয়েছে অর্ণবের এক প্রিয় বন্ধু হাসিব পাঠানের সাথে।

এক সময় দুজনে মিলে ঢাকায় গান করতেন। সিডনির এই আয়োজনেও দুজনে মিলে আইয়ুব বাচ্চু ও জেমস্-দুটি জনপ্রিয় গান করেন। যাতে দর্শক সুরের মায়াজালে বন্দি হয়ে ছিল কিছু সময়।

আগত দর্শকরা বলেন, সত্যি আমি আনন্দে আত্মহারা, প্রবাসে এমন বাংলা গানের অনুষ্ঠান! আমি এক কথায় কল্পনা
করতে পারছি না। অনেক দিন যাবৎ প্রবাসে আছি এমন হৃদয়কাড়া অনুষ্ঠান এর আগে দেখিনি’।

গ্রিনফিল্ড এন্টারটেইনমেন্টর মিউজিক ফেস্ট-এর আয়োজক এনামুল হক, ফয়সাল আজাদ ও মিরাজ হোসেন।

মিউজিক ফেস্ট-এর আয়োজক এনামুল হক বলেন, প্রবাসী বাঙালিদের মধ্যে যে উৎফুল্লতা আমরা দেখেছি তাতে আমরা
সত্যি অভিভূত। আমি মনে করি প্রত্যাশার চেয়েও আমরা বেশি সফল।

আরেক আয়োজক ফয়সাল আজাদ বলেন, আমাদের খুবই ভালো লাগছে যে, মিউজিক ফেস্টটি আমরা সফলতার সঙ্গে
সম্পন্ন করতে পেরেছি, এ জন্য বিপুল দর্শক ও শিল্পীদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমরা আশা করছি সামনে আরো বড় ধরণের আয়োজন করতে পারব।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য