বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০১ ঘণ্টা ০০ মিনিট আগে

মাশরাফিও আছেন ১১ দফার পক্ষে

অনলাইন ডেস্ক

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নানা সিদ্ধান্ত ও কার্যক্রমে অসন্তুষ্ট ক্রিকেটারেরা। এবার তাদের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করলেন বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাও।

সোমবার (২১ অক্টোবর) রাতে মাশরাফি ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন। পাঠকদের জন্য সেটি হুবহু তুলে ধরা হলো:-

‘অনেকেই প্রশ্ন করছেন যে, দেশের ক্রিকেটের এমন একটি দিনে আমি কেন উপস্থিত ছিলাম না। আমার মনে হয়, প্রশ্নটি আমাকে না করে, ওদেরকে করাই শ্রেয়। এই উদ্যোগ সম্পর্কে আমি একদমই অবগত ছিলাম না। নিশ্চয়ই বেশ কিছু দিন ধরেই এটি নিয়ে ওদের আলোচনা ছিল, প্রক্রিয়া চলছিল। কিন্তু এ সম্পর্কে আমার কোনো ধারণাই ছিল না। সংবাদ সম্মেলন দেখে আমি ওদের পদক্ষেপ সম্পর্কে জানতে পেরেছি।

ক্রিকেটারদের নানা দাবির সঙ্গে আমি আগেও একাত্ম ছিলাম, এখনও আছি। আজকের পদক্ষেপ সম্পর্কে আগে থেকে জানতে পারলে অবশ্যই আমি থাকতাম।

মিডিয়ায় ওদের খবর দেখার পর থেকে হাজারবার আমার মাথায় এই প্রশ্ন এসেছে, যে কেন আমাকে জানানো হলো না। অনেকে আমার কাছে জানতেও চেয়েছেন। কিন্তু আমি নিজেও জানি না, কেন জানানো হয়নি।

তবে আমার ঊপস্থিত থাকা কিংবা না থাকার চেয়ে, ১১ দফা দাবি বাস্তবায়িত হওয়াই বড় কথা। সবকটি দাবিই ন্যায্য, ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের মঙ্গলের জন্য জরুরী। আমি মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা, ১১ দফা দাবি শান্তিপূর্ণভাবে বাস্তবায়িত হওয়ার পক্ষে আছি, থাকব।’

১১ দফা দাবির মূল ইস্যুগুলো

 ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ব্যবস্থাপনা আগের মতো হতে হবে। বিপিএলে লোকাল ক্রিকেটারদের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করা। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি এক লাখ করা। ভ্রমণ সুবিধা, হোটেল সুবিধা। জাতীয় দলের চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারদের বাড়িয়ে ৩০ করা। ক্রিকেটার ছাড়াও অন্য কর্মীদের যেমন, গ্রাউন্ডসম্যান, কোচ ও আম্পায়ারদের বেতন বৃদ্ধি। আরেকটি ঘরোয়া ওডিআই ও টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। ঘরোয়া ক্রিকেটের ক্যালেন্ডার। ডিপিএলে বকেয়া বেতন পরিশোধ ও দুটির বেশি ফ্র্যাঞ্চাইজিতে খেলতে অনুমতি দেওয়া। 

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য