শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ১৯ মিনিট আগে

কী এমন অপরাধ, এক বছর নিষিদ্ধ: সাকিবের বাবা

অনলাইন ডেস্ক

কী এমন অপরাধ, এক বছর নিষিদ্ধ: সাকিবের বাবা

সাকিব আল হাসানকে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি এক বছর খেলতে পারবেন না কোনো ধরণের ক্রিকেট। এমন খবরে ভেঙে পড়েছেন তার স্বজনরা।

সাকিবের বাবা মাসরুর রেজা কুটিল বলেন, আমার ছেলে এমন কোনো অপরাধ করেনি যে তাকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হবে। ভুল তো মানুষের হতেই পারে। সাকিব বাংলাদেশের গর্ব, তথা মাগুরার গর্ব।
 
সাকিবের ব্যাপারে জানতে চাইলে ক্রীড়া সংগঠক বারিক আনজান বলেন, সাকিব আল হাসান শুধু আমাদের মাগুরায় নয়, পুরো বাংলাদেশের আইডল। আমরা বিশ্বকাপ নিতে চাই। তাই তার খেলাটা জরুরি। আমি মনে করি সাকিব আল হাসান ষড়যন্ত্রের স্বীকার।

তিনি জানান, বুধবার সকালে মাগুরার মানুষ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে প্রতিবাদ জানাবে।
 
এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান মাগুরা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন।

তিনি বলেন, ক্রিকেটকে ধ্বংস করার একটা পরিকল্পনা চলছে, সাকিব আল হাসানকে নিষিদ্ধ করা এটার অংশ। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে ঢাকায় ত্রিদেশীয় সিরিজ ও আইপিএলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের জন্য জুয়াড়ির কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েছিলেন সাকিব। কিন্তু বিষয়গুলো অবহেলা করে আইসিসিকে না জানানোয় তাকে এ শাস্তি দেওয়া হয়।

আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে আইসিসি।

সাকিবের তিন অভিযোগ-
১। ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের ত্রিদেশীয় সিরিজ কিংবা ২০১৮ সালের বিপিএলে দুর্নীতির প্রস্তাব পাওয়ার পরও আকসুর কাছে পুরো তথ্য প্রকাশ না করতে পারা।

২। ২০১৮ সালের ত্রিদেশীয় সিরিজে দ্বিতীয়বারের মতো দুর্নীতির প্রস্তাব পাওয়ার পরও আকসুকে জানাতে ব্যর্থ হওয়া।

৩। ২০১৮ সালের ২৬ এপ্রিল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের হয়ে খেলার সময় দুর্নীতির প্রস্তাব পাওয়ার কথা আকসুর কাছে প্রকাশে ব্যর্থ হওয়া।

তিনটি অভিযোগই মেনে নিয়েছেন সাকিব। শাস্তি নিয়ে সাকিব আইসিসি’র সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য