বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ২১ মিনিট আগে

সুদানের জাদুঘরে আরবী ভাষা সম্বলিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি

নিজস্ব প্রতিবেদক

সুদানের জাদুঘরে আরবী ভাষা সম্বলিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি

সুদানের দারফুরে স্থানীয় নিয়ালা জাদুঘরে আরবী ভাষায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী সম্বলিত প্রতিকৃতি স্থাপন করা হয়েছে। 

গত ২৯ অক্টোবর দারফুরে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে কর্মরত বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিট-১ (রোটেশন-১১)- এর কর্মকর্তারা প্রতিকৃতিটি জাদুঘর কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করেন। জাতিসংঘের ইতিহাসে এই প্রথম জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি দেশের বাইরে বিদেশের মাটিতে জাদুঘরে শোভা পাবে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নিয়ালার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ কমিশনার আল-আমির মুহাম্মদ আহমেদ আবুন্দ, নিয়ালা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক ইয়াছিন, দারফুর জাদুঘরের কিউরেটর আহমাদ আল সালাহ এবং বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিট-১ (রোটেশন-১১)- এর কমান্ডার মোহাম্মদ আব্দুল হালিম।

প্রতিকৃতি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে কমান্ডার মোহাম্মদ আব্দুল হালিম বলেন, বঙ্গবন্ধু শুধু একক কোনো ব্যক্তি নন, বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে সুদানের স্থানীয়রা যাতে ভালোভাবে জানতে পারে সেজন্য তার প্রতিকৃতিতে আরবী ভাষায় জীবনী সংযুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।

দারফুর জাদুঘরের কিউরেটর আহমাদ আল সালাহ জাতির পিতার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন এবং সুদানে বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিটের কার্যক্রমের ভূয়শী প্রশংসা করেন।

দারফুরে বাংলাদেশ ফর্মড পুলিশ ইউনিটের অপারেশনস অফিসার মাসুক মিয়া পিপিএম নিউজ টোয়েন্টিফোরকে মুঠোফোনে বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনী সুদানবাসীর মাঝে ছড়িয়ে দিতে আমরা কাজ করছি। এর আগে নিয়ালা সুপার ক্যাম্পে ওয়ার্ল্ড ফ্রেন্ড উপাধি পাওয়ায় বঙ্গবন্ধুর নামে একটি মেডিটেশন পার্ক স্থাপন করেছি। প্রতিদিন প্রচুর বিদেশি নাগরিক এই পার্ক ভ্রমণ করেন এবং বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ সম্পর্কে জানতে পারছেন।
 
ইতোপূর্বে নিয়ালা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাদুঘরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী ভিত্তিক ইংরেজীতে অনুদিত শতাধিক বই উপহার হিসেবে প্রদান করা হয়েছে।

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল 

মন্তব্য