শনিবার, ২৩ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৯ ঘণ্টা ৪০ মিনিট আগে

সুযোগ পেলেই চার্চে ও হাসপাতালেও ধর্ষণ করতো বাবা-ছেলে

অনলাইন ডেস্ক

সুযোগ পেলেই চার্চে ও হাসপাতালেও ধর্ষণ করতো বাবা-ছেলে

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার দুই নারীকে বাবা-ছেলে মিলে ১০ বছর ধরে ধর্ষণ করেছে বলে খবর বেড়িয়েছে।

অভিযুক্ত বাবার নাম ফ্রাঁসিস কিলিং। তার বয়স ৭৩ বছর। আর ছেলের নাম নাথানিয়েল কিলিং। তার বয়স ৩৮ বছর। 

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ১০ বছর ধরে তারা দুই নারীকে ধর্ষণ করে আসছেন। হাসপাতালের বেডে, চার্চে। যেখানেই সুযোগ পেয়েছেন, একা পেয়েছেন অমনি ধর্ষণ করেছেন তারা।

অভিযোগ আছে, তারা প্রতিদিন ওই নারীদের ধর্ষণ করতেন। তাদের বিরুদ্ধে সব মিলিয়ে ২১৬টি অভিযোগ আনা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ার বেকলিতে অবস্থিত একটি চার্চের বেসমেন্টে ২৪ ঘণ্টায় তিনবার এক নারীকে ধর্ষণ করেছেন ফ্রাঁসিস।

নির্যাতিত নারীরা এরপর মে মাসে পুলিশে অভিযোগ দেন। দুএক মাসের ব্যবধানে গ্রেপ্তার করা হয় বাবা-ছেলে দুজনকেই।

বলা হয়, নির্যাতিত ওই দুই নারী তাদের আত্মীয়। তবে কেমন আত্মীয় এবং তাদের নাম কী? এর কিছুই প্রকাশ করা হয়নি।

এক নারীর অভিযোগ, তিনি একটি হাসপাতালের বিছানায় ছিলেন। সেখানেই শেয়ার করতে তাকে বাধ্য করেন ফ্রাঁসিস। 

তার আরও অভিযোগ, তিনি একা ঘুমানোর চেষ্টা করছেন এমনটা বুঝতে পারলেই তার পিছু নিতো ফ্রাঁসিস। বাধ্য করতো তার বিছানায় জায়গা দিতে। সেখানেই তার ওপর যৌন লালসা মিটিয়ে নিতো। অভিযোগের পর গত ২৫ আগস্ট গ্রেপ্তার করা হয় ফ্রাঁসিসকে।

একজন রক্ষক, অভিভাবক হয়ে যৌন নির্যাতন, যৌন সম্পর্ক স্থাপন ও যৌন হয়রানিসহ ৫২টি অভিযোগ গঠন করা হয়েছে তার বিরুদ্ধে। 

অন্যদিকে, তার ছেলে নাথানিয়েলকে গ্রেপ্তার করা হয় ২১ অক্টোবর। তার বিরুদ্ধে ২০টি অভিযোগ গঠন করা হয়েছে।

বর্তমানে বাবা-ছেলে দুজনই জেলে।

সূত্র: ডেইলি মেইল, দ্য সান

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য