বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ২২ মিনিট আগে

১৪৮টি সিগারেট টানা দিল্লির রাস্তায় হাঁটার সমান

অনলাইন ডেস্ক

ভয়াবহ পর্যায়ে পৌঁছেছে ভারতের রাজধানী দিল্লীর বায়ু দুষণের মাত্রা। গত ২৪ ঘণ্টায় বায়ুতে বিপজ্জনক কণার স্তর রেকর্ড ছাড়িয়েছে। প্রতিকূল পরিস্থিতির কারণে রোববার ৩৭টি ফ্লাইট অন্যত্র ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছে। অবস্থার ভয়াবহতা অনুধাবন করে শহরের অন্তত ৪০ শতাংশ মানুষ শহর ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

দিল্লি-এনসিআর অঞ্চলে বায়ুর গুণমান ঝুঁকিপূর্ণ বলে জানিয়েছে সমস্ত পরীক্ষাই। দিল্লির বাসিন্দাদের শ্বাস নিতেই কষ্ট হচ্ছে। এই অবস্থায় চিকিত্‍সকরা পরামর্শ দিয়েছেন, শহর থেকে বেরিয়ে আসার। কারণ চোখ জ্বলছে, গলা শুকনো হয়ে যাচ্ছে, শ্বাসকষ্টে পড়ছেন সকলে। এখন রাজধানী শহরে নিরাপদ থাকাই হুমকির মুখে পড়েছে।

পরিবেশবিদরা এই দূষণমাত্রাকে সিগারেটের ধোঁয়ায় ২৪ ঘণ্টা আচ্ছন্ন থাকার সঙ্গে তুলনা করেছেন।

তাদের যুক্তি, এক ব্যক্তি যদি সপ্তাহে একশ ৪৮টি সিগারেট খান, তবে এই রকম দূষণের কবলে পড়বেন। যারা সিগারেট খান না, দিল্লির রাস্তা দিয়ে যাওয়ার অর্থ সিগারেটের ধোঁয়ায় ডুবে থাকা।

দিনে ২১টিরও বেশি সিগারেট খাওয়া হচ্ছে দিল্লির রাস্তায় ভ্রমণ করলে। একটি অ্যাপের মাধ্যমেই এই তথ্য জানা যাচ্ছে।

দিল্লির রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার সময় ওই অ্যাপই জানাচ্ছে আপনার সিগারেট খাওয়ার মাত্রা কত। এই অ্যাপের নাম হলো ‘শিট, আই স্মোক’। এই অ্যাপটি গত বছর মার্সেলো কোহেলো এবং আমাওরি মার্টিনি প্রকাশ করেছিল।

মূলত আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে এই অ্যাপটি কাজ করবে। কোনো নির্দিষ্ট জায়গায় বাতাসের গুণমান বিশ্লেষণের জন্য বিভিন্ন স্থানে দূষণমাত্রা পর্যবেক্ষণ করবে এই অ্যাপটি।

সেই বিষাক্ত স্থানে বা দূষিত নগরীতে বাতাসে শ্বাস নেওয়ার মাধ্যমে আপনি কতগুলো সিগারেট পান করছেন তা জানিয়ে দেবে।

অ্যাপ নির্মাতারা ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক। তারা গবেষণার ভিত্তিতে তৈরি করেছেন অ্যাপটি।

গণিতের মডেল ব্যবহার করে তারা এই অ্যাপের মাধ্যমে পরিংখ্যান দিচ্ছিলেন কতগুলো সিগারেটের ধোঁয়া পান করার মতো দূষণের কবলে রয়েছেন আপনি। সেই অ্যাপটিই দিল্লিতে প্রয়োগ করে এই পরিসংখ্যান পেয়েছেন পরিবেশবিদরা।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য