শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৭ ঘণ্টা ২২ মিনিট আগে

নিউইয়র্কে খালেদার মুক্তির দাবিতে আন্দোলনের ডাক

এনআরবি নিউজ, নিউইয়র্ক

নিউইয়র্কে খালেদার মুক্তির দাবিতে আন্দোলনের ডাক

‘মুক্তি, মুক্তি, মুক্তি চাই-খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই’, ‘এক দফা এক দাবি-খালেদার মুক্তি দাবি’ ইত্যাদি স্লোগানে প্রকম্পিত হলো জ্যাকসন হাইটসের ডাইভার্সিটি প্লাজা। 

‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির উদ্যোগে ১০ নভেম্বর রোববার হিমেল হাওয়া সত্ত্বেও উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নেতাকর্মী স্লোগানে অংশ নেন ।

নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির সভাপতি মাওলানা অলিউল্লাহ মোহাম্মদ আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারি সাঈদের সঞ্চালনায় এ কর্মসূচিতে বক্তব্যকালে নিউইয়র্ক স্টেট বিএনপির প্রধান উপদেষ্টা জসীমউদ্দিন (ভিপি) বলেন, ‘বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের স্বার্থেই বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির বিকল্প নেই। এ দাবি আদায়ে সর্বাত্মক আন্দোলনের পাশপাশি আন্তর্জাতিক লবি জোরদার করতে হবে।’ 

বিএনপির সাবেক কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক সম্পাদক ও মূলধারার রাজনীতিক গিয়াস আহমেদ বলেন, ‘৭ নভেম্বরের চেতনায় আমাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে বেগম জিয়াকে কারামুক্ত করতে হবে।’ যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ সোসাইটির বোর্ড অব ট্রাস্টির অন্যতম সদস্য অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘পঁচাত্তরের ৭ নভেম্বরের ঐতিহাসিক ঘটনাবলির মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে একদলীয় স্বৈরশাসনের কবর রচিত হয়েছিল।

এখন সময় এসেছে একই উদ্যমে দেশ ও প্রবাস থেকে দুর্বার আন্দোলন রচনায় বেগম জিয়ার মুক্তি তথা বাংলাদেশের গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের।’ ‘একইসাথে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সকল মামলা প্রত্যাহারে সরকারকে বাধ্য করার পদক্ষেপও নিতে হবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেই’-উল্লেখ করেন অধ্যাপক দেলোয়ার। 

যুক্তরাষ্ট্র যুবদলের সভাপতি জাকির এইচ চৌধুরী বলেন, ‘আন্দোলনের মাধ্যমেই নব্য স্বৈরাচার শেখ হাসিনার পতন ঘটাতে হবে। এর বিকল্প নেই।’ জাসাসের কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক সম্পাদক গোলাম ফারুক শাহীন বলেন, ‘সাজানো মামলায় বেগম খালেদা জিয়াকে কারারুদ্ধ করা হয়েছে আওয়ামী-বাকশালীদের লুটতরাজের রামরাজত্ব দীর্ঘতর করার মতলবে।’ 

বিএনপি নেতা ও তারেক রহমান স্বদেশ প্রত্যাবর্তন সংগ্রাম কমিটির সভাপতি পারভেজ সাজ্জাদ বলেন, ‘মামলা-হামলা আর গুম করার মধ্যদিয়ে ক্ষমতাসীনরা বাংলাদেশে আবারও বাকশাল কায়েমের অপচেষ্টা চালাচ্ছে। ৭ নভেম্বরের চেতনায় সে সব ষড়যন্ত্র নস্যাত করে দিতে হবে।’ 

সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা আতিক সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘হিমেল হাওয়া উপেক্ষা করে আজকের এ কর্মসূচিকে সর্বাত্মক সাফল্যমন্ডিত করার মধ্যদিয়েই প্রমাণিত হলো যে, যুক্তরাষ্ট্র বিএনপি, যুবদল, শ্রমিকদল, জাসাস, মহিলা দল-সকলেই বেগম জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে ঐক্যবদ্ধ।’ 

এ সময় তিনি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং কারাবন্দি খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সকলের দোয়া প্রার্থনা করেন। 

এতে আরও বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র বিএনপির সাবেক সভাপতি আব্দুল লতিফ সম্রাট, সাবেক সেক্রেটারি জিল্লুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্র শ্রমিক দলের সভাপতি জাহাঙ্গির এস আলম এবং সেক্রেটারি আনোয়ারুল ইসলাম শাহীন, মুক্তিযোদ্ধা মীর মশিউর রহমান এবং ওয়াহেদ আলী মন্ডল, মহিলা দলের রাশিদা আহমেদ, এলিজা আকতার মুক্তা, জাতীয়তাবাদি ফোরামের নাসিম আহমেদ, স্টেট বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আমিনুল ইসলাম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক হুমায়ূন কবীর, উপদেষ্টা তানভির আহমেদ প্রিন্স, আনিসুর রহমান, এনামুল কবির অপু, হাবিবুর রহমান, শরিফ চৌধুরী পাপ্পু, আরিফুল ইসলাম, জাকারিয়া হায়দার, আশরাফ হোসেন, মজিবর রহমান প্রমুখ।

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল /ডিএ

মন্তব্য