শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৭ ঘণ্টা ২৫ মিনিট আগে

পাক জাদুঘরে কেন অভিনন্দনের মূর্তি, ভারতীয়দের ক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক

পাক জাদুঘরে কেন অভিনন্দনের মূর্তি, ভারতীয়দের ক্ষোভ

পাক-ভারত উত্তেজনার সময় সীমান্তে আটকের পর দেশে ফেরা ভারতীয় সেই উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের একটি মূর্তি বসানো হয়েছে পাকিস্তানের জাদুঘরে। সেখানে রাখা হয়েছে তার চা পান করার কাপটিও।

এ ছবি প্রকাশ পাওয়ার পর ঝড় উঠেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এ ঘটনায় পাকিস্তানকে সমুচিত জবাব দেওয়া হবে বলেও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, তাকে নিয়ে একের পর এক খবর ছাপানোর সঙ্গে তার ছবিসহ শাড়ি বিক্রি করা হয়েছে ভারতে। তার মতো করে গোঁফ রেখেছেন কেউ কেউ। তার নামে সন্তানের নামও রেখেছেন ভারতীয়রা। কিন্তু এবার অভিনন্দন নিয়ে মাতলেন পাকিস্তানিরা। করাচিতে পাকিস্তান বিমানবাহিনীর ওয়্যার মিউজিয়ামে এই ভারতীয় উইং কমান্ডারের একটি ম্যানিকুইন বসানো হয়েছে।

পাকিস্তানের সাংবাদিক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক আনোয়ার লোধি টুইটারে অভিনন্দনের ‘ম্যানিকুইন’-এর ছবি পোস্ট করেন।

তিনি লিখেছেন, পাকিস্তান বিমানবাহিনীর মিউজিয়ামে অভিনন্দনের ম্যানিকুইন প্রদর্শনের জন্য রাখা হয়েছে। তার হাতে চায়ের কাপ ধরাতে পারলে বিষয়টি আরও আকর্ষণীয় হতো।

আনোয়ার লোধির টুইটারে পোস্ট করা ছবিতে দেখা যাচ্ছে, অভিনন্দনের পাশে দাঁড়িয়ে আছেন এক পাকিস্তান সেনা। আর পেছনে কাচের পাটাতনে অভিনন্দনের ব্যবহৃত চায়ের কাপটিও দেখা যাচ্ছে।

টুইটের পর বিষয়টি নিয়ে সমালোচনায় মেতে ওঠেন পাকিস্তানের নেটিজেনরা। অনেকেই বলেন, অভিনন্দনকে পাকিস্তান কারাগারে আদর করে সম্মানের সহিত ফিরিয়ে দিলেও ভারতে গিয়ে বন্ধুত্বের সেই মর্যাদা তিনি রাখেননি। ভোল পাল্টে পাকিস্তানের নামে নিন্দা ও অপপ্রচার করেছেন। তাকে ভারতীয়রা বীর বলে আখ্যা দিলেও বস্তুত তিনি প্রতারক। আর সেই প্রতারকের মূর্তি পাকিস্তানের জাদুঘরে কেন স্থাপিত হলো তা বোধগম্য নয় তাদের কাছে।

এদিকে পাকিস্তানের মিউজিয়ামে ভারতীয় এই উইং কমান্ডারের মূর্তি স্থাপনের বিষয়টি স্বাভাবিকভাবে নেননি ভারতীয়রা।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য