শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৭ ঘণ্টা ২৪ মিনিট আগে

হেলপার যখন ড্রাইভার, গেল তিন প্রাণ

অনলাইন ডেস্ক

হেলপার যখন ড্রাইভার, গেল তিন প্রাণ

ড্রাইভারের অনুপস্থিতির কারণে হেলপার দিয়ে বাস চালানোয় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায় বাস। দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায় তিন যাত্রী। আহত হন আরও অন্তত ২০ জন। এছাড়া দুর্ঘটনায় হতাহতদের উদ্ধার করতে গিয়ে মারা যান স্থানীয় যুবক দুলাস মোল্যা। 

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সকাল সাড়ে নয়টার দিকে শরীয়তপুরের ডামুড্যার খেজুরতলা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- ডামুড্যা উপজেলার সিড্যা গ্রামের নুরুজ্জামান মুন্সীর ছেলে কামরুজ্জামান মাহমুদ মুন্সী (৪৫), দক্ষিণ ডামুড্যা গ্রামের বৃদ্ধ ইয়াকুব পাইক (৮০) ও ডামুড্যা পৌরসভার কুলকুড়ি গ্রামের খালেক মোল্যার ছেলে দুলাস মোল্যা (২৮)।

ডামুড্যা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোহাইমিনুল ইসলাম জানান, সকাল সোয়া নয়টার দিকে পূর্বাশা নামক একটি বাস ডামুড্যা থেকে ৩০ থেকে ৩৫ জন যাত্রী নিয়ে মাওয়া ঘাটের উদ্দেশে ছেড়ে যায়। বাসটি ছাড়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খেজুরতলা এলাকায় খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলে নিহত হন কামরুজ্জামান। পরে ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান আমেরিকা প্রবাসী ইয়াকুব পাইক।

এছাড়া দুর্ঘটনায় হতাহতদের উদ্ধার করতে গিয়ে মারা যান স্থানীয় যুবক দুলাস মোল্যা। 

এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ২০ যাত্রী। আহতদের মধ্যে ১৫ জনকে ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেলক্সসহ বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, জানা গেছে বাসের চালক বিল্লাল তালুকদার আজ বাসে ছিলেন না। হেলপার দিয়ে গাড়ি চালানোর কারণেই বাস ছাড়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য