বৃহস্পতিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০১ ঘণ্টা ১৯ মিনিট আগে

কাজের মেয়ের ভিজিটিং কার্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল

অনলাইন ডেস্ক

কাজের মেয়ের ভিজিটিং কার্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল

গীতা কালে মহারাষ্ট্রের পুণের বাভধন এলাকায় লোকের বাড়িতে কাজ করেন। সম্প্রতি তাঁর ভিজিটিং র্কাড ভাইরাল হয়েছে বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে। আর তারপরেই রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যান তিনি।  

গীতার নাম ও ফোন নম্বর ভাইরাল হওয়া সেই র্কাডে লেখা রয়েছে। তার নিচেই লেখা রয়েছে কাজের বিবরণ ও সেই কাজের মাসিক রেট। যেমন, ঝাড়ু, ঘর মোছা, কাপড় ধোয়ার মতো কাজের জন্য প্রতি মাসে ৮০০ রূপী নিয়ে থাকেন গীতা। আবার রুটি তৈরীর জন্য মাসে নেন ১০০০ রূপী। টাকার বিনিময়ে অন্যান্য গৃহস্থালরি কাজ করতে রাজি তিনি।  

তবে গীতার ইন্টারনেট সেনসেশন হওয়ার পিছনে রয়েছেন ধনশ্রী শিন্ডে। গীতা কাজ করেন ধনশ্রীর বাড়িতে। একদিন অফিস থেকে ফিরে গীতাকে মনমরা হয়ে বসে থাকতে দেখেন ধনশ্রী। কারণ একটি বাড়ির কাজ চলে গিয়েছে গীতার। যার ফলে তাঁর মাসে চার হাজার রূপী রোজগার কমে গিয়েছে। সেই কথা শুনে নিজের ব্রান্ডিং দক্ষতা কাজে লাগিয়ে নিজেই ভিজিটিং কার্ডের নকশা তৈরী করেন ধনশ্রী। ১০০টি র্কাড ছাপিয়েও আনেন। আর তার বাসার নিরাপত্তা কর্মীর সাহায্যে বাভধন এলাকায় ছড়িয়ে দেন সেই কার্ড। 

অস্মিতা জাভড়েকর নামের এক মহিলা সম্প্রতি ছবিসহ এই ঘটনার কথা ফেসবুক পোস্টে শেয়ার করেছেন। তারপরেই ভাইরাল হয়ে যায় সেই পোস্ট। সেটা ভাইরাল হতেই গীতা ফোনের বন্যায় ভেসে যাচ্ছেন। পুণে ছাড়িয়ে এখন ভারতের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কাজের প্রস্তাব আসছে গীতার কাছে। 


নিউজ টোয়েন্টিফোর/ডিএ

মন্তব্য