মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০২ মিনিট আগে

আগামী সোমবার সারাদেশে বিএনপির সমাবেশ

অনলাইন ডেস্ক

আগামী সোমবার সারাদেশে বিএনপির সমাবেশ

পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে আগামী সোমবার (১৮ নভেম্বর) ঢাকাসহ সারাদেশে সমাবেশের ডাক দিয়েছে বিএনপি। 

শনিবার (১৬ নভেম্বর) বিকেলে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর একথা জানান।

পেঁয়াজের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির পেছনে সরকারের মদদপুষ্ট সিন্ডিকেট কাজ করছে অভিযোগ করেছেন বিএনপির এই নেতা।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ইতোমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে যে পেঁয়াজের মূল্যবৃদ্ধির পেছনে সিন্ডিকেট সৃষ্টি হয়েছে। সেই সিন্ডিকেটের পেছনে সরকারের মদদ রয়েছে। শুধু পেঁয়াজ নয়, নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রত্যেকটি পণ্যের দাম বেড়ে গেছে। আমরা এ বিষয়ে সরকারের ব্যর্থতার নিন্দা জানাচ্ছি। একইসঙ্গে অবিলম্বে এই সমস্যার সমাধান করার জন্য আহবান জানাচ্ছি। এর প্রতিবাদে আগামী সোমবার (১৮ নভেম্বর) ঢাকাসহ সারাদেশে সমাবেশ করবে বিএনপি।

সৌদি আরবে নির্যাতিত হয়ে সুমি আক্তারের মতো আট হাজার নারী শ্রমিক ফেরত এসেছেন জানিয়ে ফখরুল বলেন, এর মধ্যে ৫৩ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এটা নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী যে মন্তব্য করেছেন আমরা তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন ‘এটা কোনো বড় সংখ্যা নয়’। আমরা তার এই বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি। এ বিষয়ে আমাদের নারী সংগঠনগুলো পরবর্তীতে কার্যক্রম নেবে।
 
ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও সিরাজগঞ্জে ট্রেন দুর্ঘটনায় শোক প্রকাশ করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, এই ট্রেন দুর্ঘটনা থেকে বোঝা যায় সরকার ট্রেন দুর্ঘটনা ও সড়ক দুর্ঘটনা রোধ করতে ব্যর্থ হচ্ছে। 
 
মির্জা ফখরুল বলেন, সভায় দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। চিকিৎসকরা বলেছেন তার এখন পঙ্গুত্বের অবস্থা হয়েছে। আমরা আগেও বলেছি, আজকেও অফিসিয়ালি বলছি, তার স্বাস্থ্যের অবস্থা সুনির্দিষ্টভাবে জানতে চাই।
 
খালেদা জিয়ার জামিনের জন্য আবেদন করা হয়েছে জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা আশা করবো বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে তার জামিন দেবেন, যেটা তার প্রাপ্য। কয়েকদিন আগে হারুন সাহেব (বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুন অর রশীদ) বের হয়ে এসেছেন। তার আগে আওয়ামী লীগের নেতারা জামিন পেয়েছেন।   
 
পদ্মাসেতু প্রকল্পের মেয়াদ দেড় বছর বাড়িয়ে অর্থ ব্যয় বাড়ানোর সিদ্ধান্তকে মেগা প্রজেক্টে মেগা দুর্নীতি ছাড়া কিছুই নয় বলে মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, পুরো প্রকল্পের ব্যয় এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩০ হাজার কোটি টাকা। মেগা প্রজেক্টের সঙ্গে মেগা দুর্নীতি এবং নতুন করে যোগ হয়েছে মেগা পাচার। মানি লন্ডারিং এর মাধ্যমে বিদেশে টাকা পাচার করা হচ্ছে।
 
রোহিঙ্গা ইস্যু প্রসঙ্গে বিএনপি মহাসচিব বলেন, রোহিঙ্গা নিধন ও নির্যাতনের জন্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ে মামলা হলেও বাংলাদেশ সরকার এখনো তাদের বিরুদ্ধে মামলা করছে না, এক্ষেত্রে সরকারের অনীহা দেখা যাচ্ছে। এ বিষয়ে অবিলম্বে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আমরা সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।
 
এর আগে বিকেল সাড়ে ৪টায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে (স্কাইপের মাধ্যমে) বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে এ বৈঠক হয়। বিএনপি মহাসচিব ছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, ড. মঈন খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ।

 

নিউজ টোয়েন্টিফোর/কামরুল

মন্তব্য