শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৭ ঘণ্টা ২০ মিনিট আগে

'‌অস্ত্রের দরদাম নিয়ে কথা কাটাকাটি', 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ১

অনলাইন ডেস্ক

'‌অস্ত্রের দরদাম নিয়ে কথা কাটাকাটি', 'বন্দুকযুদ্ধে' নিহত ১

কক্সবাজারের পেকুয়ায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মো. আলম (৩১) নাম এক যুবক নিহত হয়েছেন। যিনি তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ও দুর্ধর্ষ ডাকাত সর্দার বলে দাবি পুলিশের।

নিহত মো. আলম উপজেলার রাজাখালী ইউনিয়নের বদিউদ্দিন পাড়ার আবুল হোসেনের ছেলে।

পুলিশ বলছে, অস্ত্র বেচাকেনার সময় ডাকাত দলের দুপক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটির জের ধরে শুরু হওয়া বন্দুকযুদ্ধ। এতে ওই ডাকাত নিহত হন। ঘটনাস্থল থেকে দুটি একনলা বন্দুক, নয়টি এলজি, টু টু বোরের একটিসহ ১২টি আগ্নেয়াস্ত্র ও ২৩ রাউন্ড তাজা গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার ভোররাতে উপজেলার টৈটং ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের ফরেস্ট অফিসসংলগ্ন গুঁদিকাটা পাহাড়ি এলাকায় এ 'বন্দুকযুদ্ধের' ঘটনা ঘটে।

পুলিশের দাবি, 'বন্দুকযুদ্ধ' ডাকাতদের ছোড়া গুলিতে আহত হয়েছেন পুলিশের পাঁচ সদস্য।

এরা হলেন- চকরিয়া সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মো. মতিউল ইসলাম, পেকুয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মিজানুর রহমান, এএসআই মেজবাহ উদ্দিন ও মো. ইব্রাহিম এবং কনস্টেবল সাইকুল ইসলাম।

পেকুয়া থানার ওসি মো. কামরুল আজম জানান, অস্ত্র বিকিকিনির সময় ডাকাতদলের দুপক্ষের মধ্যে দরদাম নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে বন্দুকযুদ্ধে লিপ্ত হন তারা। এতে একপক্ষের ছোড়া গুলিতে বিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান আন্তঃজেলা ডাকাত সর্দার ও দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী মোহাম্মদ আলম ওরফে ডাকাত আলম।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য