শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৯ | আপডেট ০৮ মিনিট আগে

শচীনকন্যাকে বিয়ের প্রস্তুাব দিয়ে বিপাকে যুবক

নিউজ টোয়েন্টিফোর ডেস্ক

শচীনকন্যাকে বিয়ের প্রস্তুাব দিয়ে বিপাকে যুবক

শচীন টেন্ডুলকারের মেয়ে সারাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে বিপদে পড়েছেন দেবকুমার মাইতি নামে এক যুবক। তার বাড়ি পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুরের মহিষাদল এলাকায়। শচীনের অভিযোগের ভিত্তিতে শনিবার রাতে ওই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশ। 

এদিকে দেবকুমার মাইতি মানসিকভাবে অসুস্থ বলে দাবি করেছে তার পরিবার। তারা জানায়, সম্প্রতি এক প্রতিবেশীর কাছ থেকে সারার নম্বর পেয়ে এমন কাণ্ড শুরু করে দেব।

জানা গেছে, অনেক কষ্টে শচীন কন্যার নম্বর জোগাড় করেছিলের দেবকুমার মাইতি। এরপর থেকেই ফোনে সারাকে প্রেম নিবেদন করতে শুরু করেন। একপর্যায়ে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে বসেন।শচীনের অফিসেও তিনি ফোন করে সারাকে বিয়ে করতে চান বলে জানান। ফোনে বলেন, “সারাকে বিয়ে করতে চাই। সারা শুধু আমারই। ওকে কিছুতেই ছাড়ব না।”এর পরেই মুম্বাইয়ের বান্দ্রা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন শচীন।

আদালতে পেশ করে ট্রানজিট রিমান্ডে দেবকুমার মাইতিকে মুম্বাই নিয়ে যাওয়ার আবেদন জানাবে পুলিশ। কীভাবে দেবকুমার সারার মোবাইল নম্বর পেল, তাও খতিয়ে দেখা হবে।

সংবাদমাধ্যমের কাছে দেবকুমার জানান, সারাকে তিনি প্রাণের চেয়ে বেশি ভালবাসেন। তাকে বিয়ে করতে চান। নিজ হাতে সারার নামের ট্যাটুও এঁকেছেন। তার সঙ্গেই জীবন কাটানোর স্বপ্ন দেখেন।

এদিকে দেবকুমারের পাড়ার লোকজন জানিয়েছে, এলাকায় খুব শান্ত স্বভাবের ছেলে দেবকুমার। কারও সঙ্গে খুব একটা কথাবার্তা হয় না তার। আঁকাআঁকির জন্য বেশ সুনামও রয়েছে তার। বাবা নেই। এক ভাই ও মাকে নিয়ে আন্দুলিয়ার বাড়িতে থাকেন তিনি। কিন্তু সেই মুখচোরা ছেলেটি এমন কাণ্ড করে ফেলবেন তা কেউ ভাবতে পারছেন না।

মন্তব্য