রবিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ | আপডেট ০৪ মিনিট আগে

১১ বছর পর ধরা ভুয়া ডাক্তার

অনলাইন ডেস্ক

১১ বছর পর ধরা ভুয়া ডাক্তার

চিকিৎসার নামে জনসাধারণের সাথে প্রতারণা করায় বরিশালে অলিউর রহমান তোহা নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে র‌্যাব-৮। ১১ বছর ধরে তিনি নিজেকে রেজিস্ট্রার্ড চিকিৎসক বলে দাবি করে আসছিলেন।

সোমবার বিকেলে র‌্যাবের অভিযানে আটকের পর সন্ধ্যায় তাকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাসেল ইকবাল জানান, সম্প্রতি সদর উপজেলার চন্দ্রমোহন এলাকার জনৈক কহিনুর বেগম কথিত চিকিৎসক তোহার কাছে চিকিৎসা নিতে গেলে তার চিকিৎসায় প্যারালাইজড হয়ে যান তিনি। এ ঘটনায় কহিনুরের পক্ষে তার স্বজনরা বিষয়টি লিখিতভাবে প্রশাসনকে জানিয়ে প্রতিকার দাবি করেন।

পরে সোমবার বিকেলে র‌্যাবের সহায়তায় জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত চন্দ্রমোহন বাজারে অভিযান চালিয়ে রোগীদের চিকিৎসা দেওয়ার সময় তোহাকে হাতেনাতে আটক করা হয়। তার চেম্বার থেকে সরকারিভাবে নিষিদ্ধ কিছু ওষুধ উদ্ধার করা হয়। তবে ওই ওষুধ এবং নিজের বৈধ কোনো চিকিৎসা সার্টিফিকেট দেখাতে পারেননি তিনি।

১১ বছর ধরে ওই এলাকার জনসাধারণের সাথে প্রতারণা করে আসছিল তোহা। এ ঘটনায় চিকিৎসার নামে জনসাধারণের সাথে প্রতারণার দায়ে তোহাকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। দণ্ড ঘোষণার পর অলিউর রহমান তোহাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে বলে জানান নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য