যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে সৌদি ও আরব আমিরাতের বিবৃতি

যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে সৌদি ও আরব আমিরাতের বিবৃতি

যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে সৌদি ও আরব আমিরাতের বিবৃতি

অনলাইন ডেস্ক

ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশে বিমান হামলা চালিয়ে ইরানের শীর্ষস্থানীয় জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনায় বিশ্বব্যাপী নিন্দার ঝড় বইছে। এ পরিস্থিতিতে যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা করা তো দূরের কথা, উল্টো ইরাকের রাজধানী বাগদাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসে হামলার নিন্দা জানিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

আমিরাত মনে করে- মার্কিন দূতাবাসে হামলার ঘটনাটি কূটনৈতিক নীতি এবং নিয়মাবলির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

এ ধরনের পরিস্থিতির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা করা তো দূরের কথা, উল্টো ইরাকের রাজধানী বাগদাদে অবস্থিত মার্কিন দূতাবাসে হামলার নিন্দা জানিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

আমিরাত মনে করে মার্কিন দূতাবাসে হামলার ঘটনাটি কূটনৈতিক নীতি এবং নিয়মাবলির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে এমনটাই জানানো হয়।

এতে আরও বলা হয়, মার্কিন দূতাবাসে হামলার ঘটনাটি আন্তর্জাতিক আইনের চরম লঙ্ঘন। এর জেরে কূটনৈতিক সম্পর্ক এবং মধ্যপ্রাচ্যে স্থিতিশীলতা নষ্ট হওয়ার শঙ্কা তৈরি হচ্ছে।

এর আগে একই কাণ্ড ঘটিয়েছে আরব আমিরাতের মিত্র সৌদি আরব। গত শুক্রবার সৌদি যুবরাজ মুহাম্মদ বিন সালমান টেলিফোনে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে কথা বলেছেন। বলেন, ইরাকের সাম্প্রতিক উন্নয়ন নিয়ে।

অথচ, শুক্রবার মার্কিন বিমান হামলায় সোলাইমানি মারা যাওয়ার ব্যাপারে তাদের কোনো কথা হয়নি।

সূত্র : খালিজ টাইমস

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

সম্পর্কিত খবর

;