শুক্রবার, ১৪ আগস্ট, ২০২০ | আপডেট ০৮ ঘণ্টা ৪৩ মিনিট আগে

‘৩০ তারিখের ভোট ২৯ তারিখের রাতে যেন না পড়ে’

অনলাইন ডেস্ক

‘৩০ তারিখের ভোট ২৯ তারিখের রাতে যেন না পড়ে’

সুষ্ঠু ভোট নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। তার অভিযোগ, কাউন্সিলর প্রার্থীদের আটক করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, অনেক প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা হয়েছে, মাইক ভেঙে ফেলা হয়েছে। আর এ ব্যাপারে নির্বাচন কমিশন এখন পর্যন্ত দৃশ্যমান এমন কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজার ও তেজগাঁও এলাকায় জনসংযোগকালে তাবিথ আউয়াল সাংবাদিকদের কাছে এ অভিযোগ করেন।

আশঙ্কা করছি, এই নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। তাবিথ আউয়াল জানান, বিএনপিসমর্থিত প্রার্থীদের নানা রকম হুমকি দেওয়া হচ্ছে, কাউন্সিলর প্রার্থীদের আটক করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে, অনেক প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা হয়েছে, মাইক ভেঙে ফেলা হয়েছে। কিন্তু নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেও কোনো প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না।

তাবিথ বলেন, ‘আমি মেয়র প্রার্থী, আমার গণসংযোগের সময় প্রতিপক্ষ মিছিল নিয়ে, স্লোগান দিয়ে, ইটপাটকেল ছুড়ে আমাদের থামিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমি জানতে চাই, আমাদের যে ম্যাজিস্ট্রেটরা আছেন নির্বাচন কমিশনের, তাঁরা কোথায় আছেন?’

বাংলাদেশ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান ড্রাইভার্স ইউনিয়ন কার্যালয়ের সামনে দাঁড়িয়ে তাবিথ আউয়াল বলেন, আমরা একটা নেক উদ্দেশ্য নিয়ে গণতন্ত্র রক্ষা করার জন্য, ভোটের অধিকার ফিরিয়ে পাওয়ার জন্য এবং সরকার ও সব সরকারি সংস্থাকে জবাবদিহির মধ্যে রাখার আন্দোলন করছি।

সেখানে তাবিথ আউয়াল জানান, এবার ভোটের দিনের ব্যাপারে তারা সতর্ক রয়েছেন। বলেন, ‘ভোটের দিনের বড় ভিকটিম হলাম আমি। ২০১৫ সালে প্রচারণা শেষে ভোটের দিন একটা পাল্টা চিত্র দেখেছিলাম। এবার আমাদের মানসিকভাবে প্রস্তু​ত থাকতে হবে যে, কোনো ভোট যেন ৩০ তারিখের (জানুয়ারি) এক মুহূর্তও আগে দেওয়া না হয়। ২৯ তারিখ রাতে যেন কোনো ভোট না পড়ে। জনগণকে নিয়ে ভোটের দিন যথাযথভাবে প্রতিবাদ করতে হবে, যাতে কোনো চোরা ভোট এবার না পড়ে।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য