রবিবার, ১৯ জানুয়ারি, ২০২০ | আপডেট ০১ ঘণ্টা ০৫ মিনিট আগে

‘গুণ্ডাদের সঙ্গে ভদ্রলোকেরা পারবে কোত্থেকে?’

অনলাইন ডেস্ক

‘গুণ্ডাদের সঙ্গে ভদ্রলোকেরা পারবে কোত্থেকে?’

চট্টগ্রাম- ৮ আসনে উপনির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, চট্টগ্রামে উপনির্বাচনে ভোটারদেরকে ভোটকেন্দ্রে যেতেই দেওয়া হয়নি।

‌‘বোমা মেরে, লাঠিসোটা দিয়ে ভোটারদের তাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। তারপরে জিজ্ঞাসা করেন বলবে যে, আপনারা পারেননি। পারব কোত্থেকে? যে গুণ্ডা লাঠি মারে, সন্ত্রাসী করে, তার সঙ্গে ভদ্রলোকেরা, সাধারণ মানুষেরা পারবে কোত্থেকে?

আজ মঙ্গলবার দুপুরে গুলশানে দলীয় চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে গুম, খুন ও নির্মম নির্যাতনের শিকার পরিবারের সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমরা ইভিএম’র বিরোধিতা করেছি। আমরা বলেছি যে, ইভিএম দিয়ে কখনোই মানুষের যে রায়, তার প্রতিফলন হবে না। আমরা এখনো সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বিরোধিতা করছি।

সরকারে যারা আছেন তারা জোর করে ক্ষমতা দখল করে আছেন মন্তব্য করে তিনি বলেন, তারা বক্তৃতা যখন করেন মনে হয় যেন কিছুই হয়নি দেশে, চমৎকার পরিবেশ আছে, দেশের মানুষ খুব ভালো আছে। প্রতিদিন পত্রিকায় দেখবেন একটা হত্যার মহা উৎসব চলছে। আজকে একটা মারাত্মক খবর দেখলাম মহাসড়কে মানুষের শরীরের অংশ ছিটিয়ে ছিটিয়ে আছে।

দেশে ধর্ষণ ও হত্যার বিভিন্ন চিত্র তুলে ধরে ফখরুল বলেন, তিন-চার বছরের শিশুকে পর্যন্ত হত্যা করা হচ্ছে। হত্যা, শ্লীলতাহানি, ধর্ষণ যেন একটা সাধারণ ব্যাপার হয়ে গেছে। মানুষ এখন আর কথা বলে না, কথা বলার সুযোগ নেই। এটাই চেয়েছিল ওরা। ভয়ভীতি ছড়িয়ে দিয়ে পুরো ত্রাসের রাজত্ব সৃষ্টি করা, সেটাই করেছে তারা।

‘আওয়ামী লীগ স্বাধীনতা যুদ্ধের পরে দানবে পরিণত হয়েছে। ২০০৮ সালের পরে শুধু খোলসটা পাল্টে একদলীয় শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার জন্য, সংবিধান সংশোধন করেছে। তারপর একে একে বাংলাদেশের মূল চেতনাকে ধ্বংস করে গণতন্ত্রকে কবর দিয়েছে। তাদের শাসন ব্যবস্থাকে পাকাপোক্ত করতে রাষ্ট্রের সমস্ত যন্ত্রগুলোকে ব্যবহার করছে।’

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য