বৃহস্পতিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | আপডেট ২৯ মিনিট আগে

জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি-এপ্রিলে পাকিস্তানে যাবে মুশফিকরা

অনলাইন ডেস্ক

জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি-এপ্রিলে পাকিস্তানে যাবে মুশফিকরা

পাকিস্তান সফর নিয়ে কম জল ঘোলা হয়নি। বেঁধেছিল মহা জট। এবার সেই জট খুলতে শুরু করেছে। পাকিস্তান সফরে যেতে রাজি হয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। তিন মাসে তিনবার পাকিস্তান সফরে যাবে বাংলাদেশ।

এমন তথ্যই জানিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

আজ সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বাংলাদেশ টেস্ট, ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি-তিন সংস্করণ খেলতে পাকিস্তান যাচ্ছে।

বাংলাদেশে জাতীয় ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফরের বিষয়টি ঝুলে ছিল অনেক দিন ধরেই। দুই বোর্ডের পক্ষ থেকে নানা ধরনের বক্তব্য-মন্তব্য শোনা গেছে এত দিন। বিষয়টির সমাধানে আজ দুবাইয়ে আইসিসি সভাপতি শশাঙ্ক মনোহরের ‘মধ্যস্থতায়’ বসেছিলেন বিসিবি ও পিসিবির প্রধান এবং দুই বোর্ডের প্রধান নির্বাহী। পিসিবি জানিয়েছে, এই বৈঠকেই বিসিবির সঙ্গে তারা ঐকমত্যে পৌঁছেছে।

সূত্র জানায়, নতুন সিদ্ধান্তে তিন মাসে তিনবার পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ। তিন ম্যাচ সিরিজের তিনটি টি-টোয়েন্টি হবে লাহোরে। ২৪ থেকে ২৭ জানুয়ারি হবে এ সিরিজ। টি-টোয়েন্টি শেষে দেশে ফিরবে টাইগাররা।

ফের ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ। রাওয়ালপিন্ডিতে হবে সিরিজের প্রথম টেস্ট, যেটি আইসিসির টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

এক টেস্ট খেলে বাংলাদেশ ফিরে আসবে। পরে ওয়ানডে আর সিরিজের বাকি টেস্ট খেলতে এপ্রিলে আবার পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ।

সফরের একটি ওয়ানডে ও সিরিজের শেষ টেস্ট হবে করাচিতে। ফেব্রুয়ারি-মার্চে হবে পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল)। এ কারণেই টেস্ট সিরিজের মাঝে একটা লম্বা বিরতি পড়েছে বলে জানিয়েছে পিসিবি।

এ ব্যাপারে আইসিসি চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহরকে ধন্যবাদ জানিয়ে পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি বলেছেন, ‘গর্বিত দুটি ক্রিকেট খেলুড়ে দেশ ও খেলাটার বৃহৎ স্বার্থে আমরা একটা আপসে পৌঁছাতে পেরে খুশি।’

দুবাইয়ের সভায় উপস্থিত থাকা পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান বলেছেন, ‘দুই বোর্ডেরই লাভবান হওয়ার মতো এক সিদ্ধান্ত হয়েছে। সফরটা নিয়ে যে অনিশ্চয়তা ছিল সেটি কেটে যাওয়ায় খুশি।’

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য