মসজিদে মাইক ব্যবহারের অনুমতি দিল না আদালত

অনলাইন ডেস্ক

মসজিদে মাইক ব্যবহারের অনুমতি দিল না আদালত

ভারতের উত্তরপ্রদেশে দুটি মসজিদকে আজানের সময়ে মাইক ব্যবহার করার অনুমতি দিল না ভারতের এলাহাবাদ হাইকোর্ট। 

মসজিদে আজানের সময়ে মাইক ব্যবহারের অনুমতি নবায়নের জন্য আবেদন করা হয়েছিল। কিন্তু তা খারিজ করে দেয় আদালত।

প্রদেশটির জৌনপুর জেলার বাদ্দোপুর গ্রামে অবস্থিত ওই দুই মসজিদে মাইক বাজানো নিয়ে বিচারপতি পঙ্কজ মিথাল এবং ভিপিন চন্দ্র দীক্ষিতের ডিভিশান বেঞ্চ বলেছে, কোনো ধর্মই এটা শেখায় না যে প্রার্থনা করার সময়ে মাইক ব্যবহার করতে হবে বা বাজনা বাজাতে হবে। আর যদি সেরকম কোনো ধর্মীয় আচার থেকেই থাকে, তাহলে নিশ্চিত করতে হবে যাতে অন্যদের তাতে বিরক্তির উদ্রেক না হয়।

শব্দদূষণ রোধ আইন এবং সুপ্রিম কোর্টের নানা রায় তুলে ধরে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ বলেছে, ভারতীয় সংবিধানের ২৫ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রত্যেক ব্যক্তির নিজের ধর্ম পালন করার অধিকার আছে ঠিকই কিন্তু সেই ধর্মাচরণের ফলে অন্য কারো অসুবিধা করার অধিকার কারো নেই। এই আদালত মনে করে অখণ্ড রামায়ন, কীর্তন প্রভৃতির সময়ে মাইক ব্যবহার করার ফলে একদিকে যেমন শব্দদূষণ হয়, তেমনই বহু মানুষের অসুবিধাও হয়।

এলাহাবাদ হাইকোর্টে ২০ বছর আগের একটি রায়কে উদ্ধৃত করে ডিভিশন বেঞ্চ।

সেই রায়ে বলা হয়েছিল, অখণ্ড রামায়ন, আজান, কীর্তন, কাওয়ালি বা অন্য যে কোনো অনুষ্ঠান, বিয়ে প্রভৃতির সময়ে মাইক ব্যবহার করার ফলে বহু মানুষের অসুবিধা হয়। সাধারণ মানুষের কাছে আবেদন জানানো হচ্ছে যাতে মাইক ব্যবহার না করা হয়।

আদালতের সর্বশেষ এই রায়টি দেওয়া হয়েছে দুটি মসজিদের মাইক ব্যবহারের অনুমতি নবায়নের আবেদনের প্রেক্ষিতে।

কিন্তু অন্যান্য কোনো মসজিদে আজান বা মন্দিরে রামায়ন পাঠ বা কীর্তন অথবা মঞ্চে কাওয়ালি অনুষ্ঠানে মাইক ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হবে না, এটা বলা হয়নি।

মাইক ব্যবহারের অনুমতি চেয়ে দাখিল করা পিটিশন খারিজ করে দিয়ে স্থানীয় প্রশাসনের কাজে হস্তক্ষেপ করতে চায় না বলেও জানিয়েছে আদালত।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

পরবর্তী খবর

চাঁদের দেখা মেলেনি ইন্দোনেশিয়াতেও

অনলাইন ডেস্ক

চাঁদের দেখা মেলেনি ইন্দোনেশিয়াতেও

মালয়েশিয়ার পাশাপাশি ইন্দোনেশিয়াতেও পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। এজন্য ৩০টি রোজা পালন করা হবে দেশ দুটিতে।

সে মোতাবেক মুসলিম এ দেশ দুটিতে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে আগামী বৃহস্পতিবার।

news24bd.tv তৌহিদ

পরবর্তী খবর

আরব বংশোদ্ভূত ইসরায়েলিসহ ৯৮ জনকে গ্রেপ্তার

অনলাইন ডেস্ক

আরব বংশোদ্ভূত ইসরায়েলিসহ ৯৮ জনকে গ্রেপ্তার

আরব বংশোদ্ভূত ইসরায়েলিসহ ৯৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ইসরায়েলি পুলিশ। মঙ্গলবার (১১ মে) ইসরায়েলি পুলিশের এক বিবৃতিতে বিবৃতিতে বলা হয়, ৬৭ জনকে বিস্ফোরক ও পাথর ছোড়ার বিরুদ্ধে উত্তর ইসরায়েল থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। যাদের মধ্যে এক তৃতীয়াংশই আরব ইসরায়লি।

রোববার (৯ মে) হাজার হাজার আরব বংশোদ্ভূত ইসরায়েলি উত্তর ইসরালের বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ করে। বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে রাস্তা অবরোধ, টায়ারে অগ্নিসংযোগ করেছে। 

পরবর্তী খবর

গাজায় আরও বিমান হামলার নির্দেশ ইসরায়েলের

অনলাইন ডেস্ক

গাজায় আরও বিমান হামলার নির্দেশ ইসরায়েলের

বাড়তি সেনাদের প্রস্তুত থাকতে বলে গাজা উপত্যকায় আরও বিমান হামলার নির্দেশ দিয়েছেন ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গ্যান্টজ ।মঙ্গলবার (১১ মে) ইসরায়েলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী এই নির্দেশ দেন।

সংবাদমাধ্যম মারিভ ডেইলির প্রতিবেদন অনুযায়ী, নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক যৌথ সভায় পুনরায় হামলার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। সভায় গাজার ওপর বিশেষ নজর রাখতেও বলা হয়েছে।

গাজার আশেপাশে সতর্কতার জন্য বাড়তি সেনা মোতায়েন করা হবে।

মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ইসরায়েলি হামলায় ২৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে ৯ জন শিশু। এছাড়া ৮২২ জন আহত হয়েছেন। 

আল-আকসা মসজিদ মুসলমানদের জন্য বিশ্বের তৃতীয় পবিত্রতম স্থান। তবে ইহুদিরা জায়গাটিকে তাদের নিজেদের উপাসনালয় হিসেবে দাবি করে।  ১৯৬৭ সালে আরব-ইসরায়েলের যুদ্ধের সময় পূর্ব জেরুজালেম দখল করে ইসরায়েল। এরপর ১৯৮০ সালে পুরো জেরুজালেম তাদের নিয়ন্ত্রণে চলে আসে। যা এখনও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় থেকে স্বীকৃতি পায়নি।

এদিকে গাজায় “অযৌক্তিক এবং অতিরিক্ত শক্তি” প্রয়োগ করায় ইসরায়েলের তীব্র নিন্দা করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল এক বিবৃতিতে বলেছে, ইসরায়েলি বাহিনী বারবার আল-আকসা মসজিদে সহিংস অভিযানের সময় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে অপরিকল্পিত এবং বেআইনিভাবে শক্তি মোতায়েন করেছে এবং শেখ জারারাহ-তে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভকারীদের ওপর অকারণে হামলা চালিয়েছে।

news24bd.tv/আলী 

পরবর্তী খবর

বৃহস্পতিবারই মালয়েশিয়ায় ঈদ

অনলাইন ডেস্ক

বৃহস্পতিবারই মালয়েশিয়ায় ঈদ

শাওয়াল মাসের চাঁদ মঙ্গলবার (১১ মে) দেখা না যাওয়ায় মালয়েশিয়ায় এবার ঈদুল ফিতর বৃহস্পতিবার (১৩ মে) উদযাপন করা হবে। দেশটিতে চলমান লকডাউনের মধ্যেও মসজিদ ও সুরাওগুলোতে ঈদের নামাজ অনুষ্ঠিত হবে।

মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষের বরাতে গেজেটের এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়।

এ বছর ঈদ উপলক্ষে সব ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৫০ জনের মধ্যে সীমাবদ্ধ থেকে মসজিদ বা সুরাও'তে ঈদের নামাজ আদায়ের অনুমতি দেয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে মসজিদে ঈদ জামাত আয়োজনের ক্ষেত্রে সুরক্ষার ব্যবস্থা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বেশ কিছু শর্ত দেয়া হয়েছে। এসব নির্দেশনা না মানলে ‘আইনগত ব্যবস্থা’ নেয়ার কথা বলা হয়েছে।

আরবি পঞ্জিকা মেনে এক মাস রোজা পালন শেষে শাওয়াল মাসের প্রথম দিন ঈদুল ফিতর উদযাপন করবেন বিশ্বের মুসলমানরা। এটাই মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব। যদিও গত বছরের ন্যায় এবারও ঈদ এসেছে করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে। ফলে মালয়েশিয়া জুড়ে প্রবাসীদের আনন্দের ঈদে মিশেছে বিষাদের ছায়া।

এদিকে দেশটিতে মঙ্গলবার (১১ মে) দুপুর পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৯৭৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২২ জনের। সব মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৪৮ হাজার ৪৫৭ জন। 

এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ হাজার ৭২২ জন এবং সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৪ লাখ ৮ হাজার ২৩৬ জন।

এদিকে রোজা ৩০টি হবে জানিয়ে সৌদি আরব কাউন্সিলের সিনিয়র স্কলার ও রয়্যাল কোর্টের উপদেষ্টা শেখ আবদুল্লাহ বিন আল ম্যানিয়া বলেছেন, দেশটিতে বুধবার ৩০ রোজা হবে। আর বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করা হবে।

এই হিসাব অনুযায়ী ১৩ মে সৌদি আরবে ঈদুল ফিতর পালন করা হবে। এবারই প্রথম সৌদি আরব জ্যোতির্বিদ্যাকে কাজে লাগিয়ে ঈদ পালন করছে। এর আগে এতকাল সৌদি জ্যোতির্বিদ্যা নয় বরং চোখের সামনে চাঁদ দেখা না দেখার উপর ভিত্তি করে ঈদের দিনের তারিখ ঘোষণা করত। 

মঙ্গলবার (১১ মে) গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পরবর্তী খবর

ঈদ কবে, জানাল সৌদি আরব

অনলাইন ডেস্ক

ঈদ কবে, জানাল সৌদি আরব

রোজা ৩০টি হবে জানিয়ে সৌদি আরব কাউন্সিলের সিনিয়র স্কলার ও রয়্যাল কোর্টের উপদেষ্টা শেখ আবদুল্লাহ বিন আল ম্যানিয়া বলেছেন, দেশটিতে বুধবার ৩০ রোজা হবে। আর বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করা হবে।

এই হিসাব অনুযায়ী ১৩ মে সৌদি আরবে ঈদুল ফিতর পালন করা হবে। এবারই প্রথম সৌদি আরব জ্যোতির্বিদ্যাকে কাজে লাগিয়ে ঈদ পালন করছে। এর আগে এতকাল সৌদি জ্যোতির্বিদ্যা নয় বরং চোখের সামনে চাঁদ দেখা না দেখার উপর ভিত্তি করে ঈদের দিনের তারিখ ঘোষণা করত। 

মঙ্গলবার (১১ মে) গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

পরবর্তী খবর