শনিবার, ৪ এপ্রিল, ২০২০ | আপডেট ০২ মিনিট আগে

বিয়ের প্রলোভনে দুই মাস ধরে তরুণীকে ধর্ষণ

অনলাইন ডেস্ক

বিয়ের প্রলোভনে দুই মাস ধরে তরুণীকে ধর্ষণ

বরিশাল নগরীর কাউনিয়া প্রধান সড়ক এলাকায় প্রতিবেশী এক তরুণীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের দায়ে এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। জরিমানা অনাদায়ে আরও ৩ বছরের দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তের নাম অজয় কুমার, তিনি দুই মাসের অধিক সময় ধরে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক শামীম আজাদ আসামির অনুপস্থিতিতে এই রায় ঘোষণা করেন। অজয় একই এলাকার বাবু পালের ছেলে। 

ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী আজিবর রহমান জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ২০০৮ সালের ২২ ডিসেম্বর থেকে ২০০৯ সালের ৭ মার্চ পর্যন্ত প্রায় আড়াই মাসে আসামি অজয় ভিকটিমকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে গত বছরের ৮ মার্চ ওই তরুণী বিয়ের জন্য চাপ দেয়। কিন্তু অজয় তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। এ নিয়ে পারিবারিকভাবে কোনও মীমাংশা না হওয়ায় তরুণীর বাবা বাদী হয়ে অজয়কে আসামি করে মামলা করেন।

২০০৯ সালের ৩১ জুলাই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কোতয়ালী মডেল থানার এসআই কমলেশ চন্দ্র হালদার একমাত্র আসামি অজয়কে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। পরে ট্রাইব্যুনালে ১১ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বিচারক ওই রায় ঘোষণা করেন।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য