বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ |

অধিনায়ক আকবরসহ সাতজনই দিনাজপুর বিকেএসপির

ফখরুল হাসান পলাশ, দিনাজপুর প্রতিনিধি

অধিনায়ক আকবরসহ সাতজনই দিনাজপুর বিকেএসপির

আকবর-ইমনদের হাত ধরে ক্রীড়াঙ্গনের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বিশ্বজয় করেছে বাংলাদেশ। সেই অবিস্মরণীয় জয় এবং যুবাদের আকাশ ছোয়া সাফল্যে মাতোয়ারা পুরো দেশ। সেই সঙ্গে বিজয়োল্লাসের সামিল হয়েছে বিকেএসপি দিনাজপুরের শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তারা। খুশির খবর বিশ্বকাপ জয়ী অনূর্ধ-১৯ স্কোয়াডের অধিনায়ক আকবর আলীসহ ৭জন খেলোয়াড় বিকেএসপি দিনাজপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ছাত্র ছিলেন।

স্কোয়াডের এই সাতজন বিভিন্ন মেয়াদে প্রশিক্ষণসহ জেএসসি পাশের পর ঢাকা বিকেএসপিতে চলে যান। হাতে কলমে যারা প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন সেইসব প্রশিক্ষক স্মৃতি বর্ণনা করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। আজ তারা ইতিহাসের অংশ।
দিনাজপুর শহর থেকে মাত্র ৮ কিলোমিটার দূরে বাশেরহাট এলাকায় বিকেএসপি দিনাজপুর আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। ২০১২ থেকে ২০১৭ সালের ভেতর অনূর্ধ্ব-১৯-এর অধিনায়ক আকবর আলীসহ ৭জন খেলোয়াড় বিভিন্ন সময়ে ভর্তি হন এই
বিকেএসপিতে। এখানে প্রশিক্ষণ নেন আকবর আলী, হাসান মুরাদ, তানজিম হাসান সাকিব, পারভেজ হোসেন ইমন, প্রান্তিক নওরোজ নাবিল, শামীম পাটোয়ারী, আশরাফুল ইসলাম সিয়াম।

স্কুল পর্যায়ে দিনাজপুরে ক্রিকেট কোচ আকতার ইমাম সোহেল আনোয়ার ডিআর ও হাবিবুর রহমান লিপন সেই সময় তাদের প্রশিক্ষণ দেন। পরে তারা ঢাকা বিকেএসপিতে চলে যান। বিকেএসপির বর্তমান শিক্ষার্থীরা বড় ভাইদের সাফল্যে বেশ
খুশি। ইতিহাসের বড় জয় ও বড় ভাইদের অনুসরন করে তারাও ক্রিকেট দুনিয়ায় এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চায়।

প্রতিভা অন্বেষণ কোচ ইরফানুজ জামান সোহাগ জানান, বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্যের বেশির ভাগ ট্যালেন্ট হান্ট প্রোগ্রাম থেকে বাছাই করা হয়েছে। তাদের সাফল্য ধারাবাহিকতা রক্ষা করাই এখন মূল লক্ষ। দিনাজপুর বিকেএসপির সব খেলোয়াড়রাই জয়ের পর থেকে বেশ আত্মবিশ্বাসী।

যার অধীনে আকবররা প্রশিক্ষণ নিয়েছিল প্রধান ক্রিকেট কোচ আকতার ইমাম সোহেল আনোয়ার ডিআর জানান, অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক আকবর আলী ২০১২ থেকে ১৫ সাল পর্যন্ত এখানে অধ্যায়নরত ছিল। এই সময়ের খেলোয়াড়রা খুব অল্পতেই শিখে নিত বলে জানালেন এই কোচ।

তিনি আরো বলেন, আকবর আলী যখন দিনাজপুর থেকে ঢাকা বিকেএসপিতে যায় তখন আমারও ওখানেই বদলি হয়েছিল। সেই সময় তার মধ্যে কিছু করার আত্মবিশ্বাস চোখে পড়ার মতো ছিল।

প্রতিষ্ঠানের প্রধান উপ পরিচালক আখিনুর রহমান রুশো জানান, বিশ্বকাপ স্কোয়াডের সাতজন সদস্য দিনাজপুর বিকেএসপিতে প্রশিক্ষণ নিয়েছে। তাদের মৌলিক উন্নয়ন এখান থেকে হওয়ায় অনেক গর্ববোধ করছি। তবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
চেয়ে ছিলেন ঢাকার মতো ঢাকার বাহিরে থাকা বিকেএসপির আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলোও প্রতিষ্ঠিত হক এবং খেলোয়াড় তৈরিতে ঢাকার মতোই সাপোর্ট দেক। সেই স্বপ্নেরই বাস্তবায়ন ঘটেছে। এই আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ওইসব খেলোয়াড়দের বেসিক ট্রেনিং ভালো হয়েছে বিধায় তারা এখন ভালো খেলছে।

দিনাজপুর বিকেএসপি আঞ্চলিক প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে মানসম্মত শিক্ষার পাশাপাশি ক্রিকেট এবং সাঁতার প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে এখানে বর্তমানে ক্রিকেটে ১২৭ জন এবং সাতারে ২৩ ছাত্র প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য