রবিবার, ৫ এপ্রিল, ২০২০ | আপডেট ০৩ মিনিট আগে

ছাত্রীর ছবি ফেসবুকে পোস্ট, কান ধরে ওঠবস, অতঃপর...

ছাত্রীর ছবি ফেসবুকে পোস্ট, কান ধরে ওঠবস, অতঃপর...

ফেসবুকে ছবি পোস্ট নিয়ে জুনিয়র এক ছাত্রীর দ্বারা লাঞ্ছিত হওয়ার অপমানে একই বিভাগের সাব মিয়া সোহেল নামে সিনিয়র এক ছাত্র আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন। পরে সহপাঠিরা তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

মঙ্গলবার দুপুরে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) নীল দীঘি পাড়ে লাঞ্ছিতের ঘটনার পর রাতে হলে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় ওই ছাত্র। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন সায়েন্স এন্ড লাইব্রেরি ম্যানেজম্যান্ট
বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ওই ছাত্র ফলিত গণিত বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র সাবিকুল হাসান দূর্জয় ও ইনফরমেশন সায়েন্স এন্ড লাইব্রেরি ম্যানেজম্যান্ট বিভাগের এক ছাত্রী বসে থাকার একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে। এতে সিনিয়র দূর্জয় ক্ষিপ্ত হয়ে প্রথমে সোহেলকে ডেকে এনে বেদম মারধর করে। এক পর্যায়ে সোহেলের বিভাগের জুনিয়র জেনি এসেও সোহেলের সঙ্গে অশোভন আচরণ করে এবং তাকে সকলের সামনে কান ধরিয়ে হাঁটায়। পরে তার ছবি তুলে হুমকি দেয় যদি বিষয়টি কাউকে বলে তাহলে তাকে শেষ করে দেবে। জুনিয়রের এমন লাঞ্ছনা ও অপমান সহ্য করতে না পেরে রাতে নিজ কক্ষে ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় সোহেল। পরে বিষয়টি টের পেয়ে সহপাঠিরা তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

আজ বুধবার ভোরের দিকে তার জ্ঞান ফেরে বলে জানান সহপাঠিরা। এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তারা।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর এর সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য