বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | আপডেট ০৯ মিনিট আগে

দেশে ফিরেই অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে

অনলাইন ডেস্ক

দেশে ফিরেই অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের এক মালয়েশিয়া প্রবাসী দেশে ফিরেই অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে সর্বস্ব হারিয়েছেন। আজ মঙ্গলবার দুপুর ১২টা ১০ মিনিটের দিকে লাকসাম বাইপাস এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ওই প্রবাসীর নাম ফয়েজ উল্লাহ মুরাদ (২২)।

তিনি নাঙ্গলকোটের পেরিয়া ইউনিয়নের কাজীর জোড়পুকুরিয়া গ্রামের মাওলানা আলী হোসেনের ছেলে।

ফয়েজ উল্লাহ মুরাদ জানান, আজ মঙ্গলবার ভোরে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিমানযোগে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নেমে সকাল ৭ টার দিকে আল বারাকার একটি বাসযোগে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। এসময় তার পাশের সিটে বসা ৪৫ বছর বয়স্ক এক অজ্ঞাতপরিচয় লোক (প্রতারক) কথা বলতে বলতে তার সাথে সখ্যতা গড়ে তোলেন। ওই প্রতারক ওমান থেকে ফিরেছেন বলে তাকে জানান। একপর্যায়ে মুরাদ অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

তিনি আরও বলেন, ‌বাসটি দুপুর ১২টা ১০ মিনিটের দিকে লাকসাম বাইপাস এলাকায় পৌঁছালে ওই লোকটি মালামালসহ মুরাদকে গাড়ি থেকে নামিয়ে পার্শ্ববর্তী একটি হোটেলে নিয়ে তাকে কোল্ডড্রিংকস খেতে দেন। কিছুক্ষণ পর লাকসাম বাইপাস হাউজিং এস্টেট মসজিদের সামনে নিয়ে মুরাদকে ফ্রেশ হতে বলে। সরল বিশ্বাসে মুরাদ ফ্রেশ হতে গেলে লোকটি সুকৌশলে তার মালামালের ব্যাগ ও হ্যান্ডব্যাগ নিয়ে যায়। ওই ‌‘প্রতারক’ মুরাদের নগদ ১ লাখ ২০ হাজার টাকা, ৩ ভরি স্বর্ণালংকার, অন্য মালামাল, ভিসা, পাসপোর্ট ও টিকেট নিয়ে যায়।

তরুণ প্রবাসী ফয়েজ উল্লাহ মুরাদ জানান, ৪৫ দিনের ছুটি নিয়ে তিনি বিয়ে করার উদ্দেশ্যে দেশে ফেরেন। কিন্তু ভিসা, পাসপোর্ট, টিকেট, নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও মালামাল হারিয়ে তিনি সর্বশান্ত।

এবিষয়ে তিনি মসজিদের ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে থানায় সাধারণ ডায়েরি করবেন বলে জানান।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য