সোমবার, ৬ এপ্রিল, ২০২০ | আপডেট ০২ ঘণ্টা ০৭ মিনিট আগে

‘চড় নয়, কিল নয়, লাথি নয়, বরং চুমু খাক মানুষ’

অনলাইন ডেস্ক

‘চড় নয়, কিল নয়, লাথি নয়, বরং চুমু খাক মানুষ’

ভালোবাসা দিবস উদযাপন করেন না বলে জানিয়েছেন ভারতে নির্বাসিত বিতর্কিত লেখিকা তাসলিমা নাসরিন। বলেছেন, ভ্যালেন্টাইন ডে’র উৎস বর্বর, আমি উদযাপন করি না।

শুক্রবার নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডিতে ভালোবাসা দিবস নিয়ে এক স্ট্যাটাসে তসলিমা এমন মন্তব্য করেন।

তিনি লেখেন, আজ ভ্যালেন্টাইন ডে! অদ্ভুত একটা দিন বটে। ছোটবেলায় এরকম দিনের নাম শুনিনি। হঠাৎ যেন উড়ে এসে জুড়ে বসল। জুড়ে বসে ভালো কাজ যদি করতে পারে করুক।

তসলিমা জানান, আজ একবিংশ শতাব্দীতেও সেই ভ্যালেন্টাইনের নামে দিবস পালন হচ্ছে। তবে দিবসটি এখন ব্যবসায়ীদের জন্য বিশাল দিন। আমেরিকায় এ বছর ১৮.২ বিলিয়ন ডলারের ভ্যালেন্টাইন ডে’র উপহার ক্যান্ডি, ফুল, কার্ড আর ডিনার বিক্রি হয়েছে। গত বছর হয়েছিল ১৭.৬ বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা।

তিনি বলেন, ভ্যালেন্টাইন ডে’র উৎস যত কুৎসিত হোক, যত বর্বরই হোক, যত উদ্ভট হোক, দিনটি নিয়ে ব্যবসায়ীরা যত ব্যবসা করুক না কেন, দিনটির সঙ্গে ভালোবাসা জড়িয়ে আছে, ভালোবাসাটা জেফ্রি চশারের কারণেই জড়াক, জড়িয়েছে তো!

বিতর্কিত এই লেখিকা আরও বলেন, দিনটি যদি ব্যবসায়ীদের হাত থেকে মুক্তি পেতো, সবচেয়ে ভালো হতো। কিন্তু আপাতত মুক্তি পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। ব্যবসায়ীরা দিবসটির নামে ব্যবসা করে নিচ্ছে বলে গোটা দিবসটিকে উড়িয়ে দেয়া ঠিক নয়। তার চেয়ে দিবসটিকে আর কী কী উপায়ে সুন্দর এবং সমৃদ্ধ করা যায়, সে বিষয়ে আমাদের ভাবতে হবে।

‘যদিও আমি মনে করি, ভালোবাসা এক দিনের জন্য নয়, ভালোবাসা নিত্যদিনের জন্য, যদিও আমি ব্যক্তিগতভাবে ভ্যালেন্টাইন ডে উদযাপন করি না, কিন্তু সমাজটা যেহেতু স্বার্থান্ধ, এই সমাজটাকে চাই ভালোবাসা শিখুক, ভালোবাসার চর্চা করুক।’ লেখেন তাসলিমা।

তিনি বলেন, ঘৃণা প্রদর্শন নিয়ে জড়তা নেই, কিন্তু ভালোবাসা নিয়ে যেহেতু জড়তা আছে, চাই আনুষ্ঠানিকভাবে মানুষের জন্য মানুষ ভালোবাসা প্রকাশ করুক। মানুষ প্রকাশ্যে মানুষকে চড় নয়, কিল নয়, লাথি নয়, বরং চুমু খাক। একটি দিন ভালোবাসার চর্চা করলে মানুষ প্রকাশ্যে প্রেম করাকে আর চুমু খাওয়াকে মন্দ বলে ভাববে না, নিষিদ্ধ বলে ভয় পাবে না, মানুষের দ্বিধা কেটে যাক। আজ এই দিনে ভায়োলেন্স নিষিদ্ধ হোক।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য