মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০২০ | আপডেট ৩৯ মিনিট আগে

পাপিয়ার বিচার হবে: কাদের

অনলাইন ডেস্ক

নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক শামীমা নূর পাপিয়ার পরিচয় যেটাই হোক, অপরাধ অনুযায়ী বিচার হবে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমন কথা বলেছেন।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, ‘অপরাধ অনুযায়ী অপরাধী শাস্তি পাবে। সরকার দলের হোক কিংবা বাইরের হোক- কোনো অপরাধীকে পার পেয়ে যেতে দেইনি। সব অপরাধীকেই বিচারের আওতায় আনা হয়েছে। পাপিয়ার পরিচয় যেটাই হোক, অপরাধী হিসেবে এবং অপরাধ অনুযায়ী বিচার হবে।’

‘অপরাধের বিচার করতে গেলে তো পেছনের লোক খোঁজা হয়-ই, হবে না কেন? তারা সামনে আসবে না, এটা মনে করার তো কোনো কারণ নেই। আমাদের সরকারের আমলে এ ধরনের বিচার প্রক্রিয়া চলেছে। বিষয়টি যখন আদালতে যাবে, তখনতো তো সবকিছুই আসবে।’

পাপিয়া যে অপরাধ করছেন, আপনারা কি দলীয়ভাবে সেটা বুঝতে পারেননি? এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘বুঝতে পরলে তো আর এটা হতো না।’

কাদের বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কি সরকারের বাইরে? এ সরকারের আমলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অপরাধের জন্য যাদের গ্রেফতার করছে, শাস্তি দিচ্ছে- এটা কি সরকারের ইচ্ছার বাইরে হচ্ছে? সরকারের সায় এবং এসব বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি আছে বলেই আজকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নিচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সেই স্বাধীনতা দেয়া হয়েছে। অপরাধ-অন্যায় যারাই করবে, তাদের যেটাই পরিচয় হোক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। সেই অনুযায়ী অ্যাকশন নেওয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি একটা বিষয় পরিষ্কার করে বলতে চাই, এই দেশে আগেও সরকার ছিল। ১৯৭৫ সালের পর ২১ বছর আমরা পুরোপুরি পাওয়ারে (শক্তি) ছিলাম না। পার্থক্যটা হচ্ছে, অন্যান্য সরকার অপরাধী-অপকর্মকারীদের বিচারের আওতায় নিয়ে আসার বিষয়টি অবহেলা ও উপেক্ষা করেছে। তাই অপরাধীরা শাস্তি পায়নি।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘এই সরকারের আমলে কেউ যদি অপরাধ করে তার পরিচয় যদি দলীয়ও হয়, সরকারের পক্ষ থেকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থাকে নির্দেশ দেওয়া আছে, পরিচয়ই যেটাই হোক অপকর্মের জন্য যেন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়। বিচার করা হয়।’

উল্লেখ্য, শনিবার গ্রেপ্তারের পর ওইদিন রাতেই নরসিংদীর বাসায় এবং রোববার ভোরে হোটেল ওয়েস্টিনে তাদের নামে বুকিং করা বিলাসবহুল প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটে অভিযান চালানো হয়।

এছাড়া ফার্মগেট এলাকার ২৮ নম্বর ইন্দিরা রোডে অবস্থিত রওশন’স ডমিনো রিলিভো নামক বিলাসবহুল ভবনে তাদের দুটি ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি পিস্তলের ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড পিস্তলের গুলি, পাঁচ বোতল বিদেশি মদ ও নগদ ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, পাঁচটি পাসপোর্ট, তিনটি চেক, বিদেশি মুদ্রা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি ভিসা ও এটিএম কার্ড জব্দ করে র‌্যাব।

(নিউজ টোয়েন্টিফোর/তৌহিদ)

মন্তব্য